দুই বছর আগেও দলে ছিলেন না, এখন অধিনায়ক— জবাবে যা বললেন সোহান

  বিডি পিপলস ভয়েস ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৪:৫১, রবিবার, ২৪ জুলাই, ২০২২, ৯ শ্রাবণ ১৪২৯

স্পোর্টস ডেস্ক


গুঞ্জন ছিল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জায়গায় টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব পাবেন সাকিব আল হাসান। কিন্তু আসন্ন জিম্বাবুয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের অনুপস্থিতিতে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পেয়েছেন সোহান।

অথচ দুই বছর আগেও দলে ছিলেন না তিনি। কুড়ি ওভারের ম্যাচে তার পারফরম্যান্সও আহামরি নয়। এখন পর্যন্ত ৩৩ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ১২.৯ গড়ে সোহানের সংগ্রহ ২৭১ রান।

আর সেই সোহান এখন টি-টোয়েন্টির দলপতি। পেছনে ফিরে তাকালে কি অবাক লাগে?

 

এক সংবাদকর্মীর এমন প্রশ্নের জবাবে সোহান জানালেন, অবাক লাগে না। কারণ কঠোর পরিশ্রম আর সততার প্রতিদান পেয়েছেন তিনি।

এ উইকেটকিপার-ব্যাটার বললেন, ২০১৮ সালে যখন আমি জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলাম, তখন সেই হতাশা কাটিয়ে উঠতে আমার অনেক সময় লেগেছে। কী হবে, কী করব— এসব চিন্তা করেই দুই মাস কেটে গেছে। আমার ব্যক্তিগত জীবন, পারিবারিক জীবনে এটার প্রভাব পড়েছিল। ওই সময়টা আমার জন্য অনেক বড় শিক্ষা। এর পর ফেরার লড়াইটা তো সবাই জানেন। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি, নিজের প্রতি সৎ ছিলাম। আমি এখন যা-ই করি, শতভাগ চেষ্টা দিয়ে করি। যেন নিজেকে দোষারোপ করতে না হয়, যেসবটা দিয়ে চেষ্টা করিনি।

এর পরও পারফরম্যান্স নিয়ে নানা সমালোচনা তো রয়েছেই। কম রানেই সাজঘরে ফিরছেন, যা নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ এ ঘরোয়া ক্রিকেটে শেখ জামালের এ দুর্দান্ত পারফরমার।

নিজের পারফরম্যান্সের ব্যাপারে নুরুল হাসান বলেন, আমি সাদা বলের ক্রিকেটে যেখানে ব্যাটিং করি, সেখানে অবদান রাখার মতো ইনিংস খেলতে হয়। আমি হয়তো একদিন ২০ রান করব, ওই দিনের জন্য হয়তো সেই ২০ রানের ইনিংসটি হবে গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস। পরের ম্যাচে আবার যখন রান করব না, তখন মানুষ বলবে আমি রান করছি না। কারণ আগের ম্যাচের ওই ২০টা রান মানুষের মনে থাকে না। ২০ রান তো আর মাথায় রাখার মতো সংখ্যা না, এটিই হয়। তাই আমি বাইরের বিষয় নিয়ে ভাবি না। নিজে ১০০ ভাগ দিচ্ছি কিনা, এটিই সবচেয়ে জরুরি। 

Share This Article