বাসায় স্ত্রীকে খুন করে অফিসের সেপটিক ট্যাংকে ফেলে দেন স্বামী

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:০২, মঙ্গলবার, ১৪ জুন, ২০২২, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

চট্টগ্রামের নাসিরাবাদ হাউজিংয়ের একটি বাসা থেকে গলিত ও বিকৃত লাশ উদ্ধারের পর ক্লুলেস হত্যা মামলায় প্রায় সাতমাস পর অবশেষে নিহতের পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি ঘাতক শওকত আলীকে (৬৫) গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০২১ সালের ৯ নভেম্বর শওকত তার স্ত্রী লিপি আক্তারকে শ্বাসরোধ করে ভাড়া বাসায় হত্যা করেন। পরে মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির ৩ নম্বর রোডের ৬ নম্বর বাসার অফিসে এনে সেপটিক ট্যাংকিতে ফেলে দেন। ওই বাড়িতে থাকা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এমজিএইচ গ্রুপের নাসিরাবাদ শাখার ক্লিনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন শওকত আলী।

সোমবার (১৩ জুন) দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবি (উত্তর) বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আলী হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, নিহত লিপি আকতার ও শওকত আলীর গ্রামের বাড়ি বরিশালে। শওকত আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী লিপি। ২০১৩ সালে শওকত ও লিপি আকতারের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের কয়েক বছর পর পুনরায় তারা নগরীর একটি ভাড়া বাসায় একসঙ্গে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বসবাস করে আসছিলেন। তাদের পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০২১ সালের ৯ নভেম্বর শওকত লিপি আক্তারকে শ্বাসরোধ করে ভাড়া বাসায় হত্যা করেন।

পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আলী হোসেন বলেন, এটি একটি ক্লুলেস মামলা। গত ৭ এপ্রিল নগরের পাঁচলাইশ থানার নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির একটি বাসার সেপটিক ট্যাংক পরিষ্কারের সময় ট্যাংকির ভেতরে এক অজ্ঞাত নারীর গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পাঁচলাইশ থানায় মামলা দায়ের করা হয়। গত ২৯ মে মামলাটি তদন্তভার ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়।

এরপর ঘটনাস্থলের আশপাশের অনেক সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করেও কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে এমজিএইচ গ্রুপের অফিসের সব স্টাফদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে শওকতের কথায় গরমিল পাওয়া যায়। ১৩ জুন সকালে তাকে মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি স্বীকার করে।

বিষয়ঃ হত্যা

Share This Article

শরিকদের সাথে প্রতারণা, ভরাডুবি হলে সব দায় বিএনপির !

গণতন্ত্র মঞ্চ: ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

নির্বাচন কমিশনে চিরুনি অভিযান:সর্ষেই ভুত!

বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন:সময় না পেরুতেই বেকায়দায় আন্দোলনের সঙ্গীরা!

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচার প্রচেষ্টায় গুরুত্ত্ব দিচ্ছে না!

যেভাবে বিশ্ব রাজনীতিতে প্রভাব ফেলছে বাংলাদেশ!

দুই মার্কিন কর্মকর্তার ঢাকা সফর: নতুন উচ্চতায় বাংলাদেশ-মার্কিন সম্পর্ক

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে বিদ্যুতের দাম কেমন?

কয়লার দামে আদানির কারসাজি: বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তির সংশোধন চায় বাংলাদেশ

উপনির্বাচনের প্রার্থী হিরো আলম নাকি বিএনপি?


ওষুধের লাইসেন্সহীন উৎপাদন-মজুদ-ভেজালে কঠোর সাজা

অর্ধযুগ পরে বিএনপিতে কেন্দীয় ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক: বিলুপ্তির গুঞ্জন ছাত্রদলের কমিটি

না.গঞ্জে রেস্তোরাঁ ব্যবস্থাপককে গুলির ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ২

‘বাস্কেট কেস’ থেকে বাংলাদেশ এখন আধুনিক দেশ: দ্য স্টেটসম্যান

উন্নয়নের জোয়ারে বিএনপির আন্দোলন তলিয়ে যাচ্ছে : কাদের

অবৈধ কর্মীদের বৈধ করা হচ্ছে: মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

গণতন্ত্র সূচকে অগ্রগতি সমালোচনাকে অসার প্রমাণ করেছে: তথ্যমন্ত্রী

৩০ অসুস্থ ব্যক্তি পেলেন প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসা সহায়তা

বাংলাদেশ থেকে অভিবাসন ব্যয় কমাতে চায় মালয়েশিয়া

স্মার্ট বাংলাদেশের ধারণায় আগামী প্রজন্ম অনেক দূর এগিয়ে যাবে

‘আদানির বিদ্যুৎ নিয়ে যেসব কথা হচ্ছে, তার ভিত্তি নেই’

ঢাকায় ‘ছোঁ পার্টির’ ১৬ জন গ্রেফতার