নেপথ্যে ড.ইউনুস: হঠাৎ তৎপর বিদেশী কূটনীতিকরা

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৪:৪৪, বুধবার, ৬ জুলাই, ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯
ড. ইউনুস
ড. ইউনুস

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কূটনৈতিক মেরুকরণ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশে বিভিন্ন প্রভাবশালী দূতাবাসগুলো নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক, অবাধ ও সুষ্ঠু হওয়া নিয়ে বিভিন্ন বক্তব্য প্রদান শুরু করেছেন। এছাড়া ১৪টি দেশের কূটনীতিকরা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন।

বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রভাবশালী দেশগুলো সব নির্বাচনেই প্রভাব তৈরি করতে চায়। এজন্য তাদের তৎপরতা দেখা যায়। তবে এবার নির্বাচনকে ঘিরে ড. ইউনুসেরও গোপন তৎপরতার প্রভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে।

বিভিন্ন সূত্র বলছে, ১/১১’র সেনাশাসিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ড. ইউনুস মাইনাস টু ফর্মূলার মাধ্যমে দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যেতে চেয়েছিলেন। এজন্য তিনি ‘নাগরিক শক্তি’ নামে একটি নতুন দলও গঠন করেছিলেন। কিন্তু সে সময় রাজনৈতিক দলগুলোর জোরালো বিরোধীতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। তাই ড. ইউনুস জীবনের এই শেষ প্রান্তে এসে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য কূটনৈতিকদের কাজে লাগাচ্ছেন বলে জানিয়েছে সূত্রটি।

এরই ধারাবাহিকতায়  ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে আইনজীবী ও সংস্লিষ্ট মহলকে  প্রলুব্ধ এবং বিপুল পরিমান ঘুষ প্রদান করে মামলা ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গ্রামীণ টেলিকমের ৪৩৫ কোটি টাকা কর্মচারীদের বকেয়া, বেতন ইত্যাদি আপোষরফার জন্য তিনি শ্রমিক পক্ষের আইনজীবীদের ১২ কোটি টাকা দিয়েছেন বলে গণমাধ্যমে সংবাদ বেরিয়েছে এবং এটি হাইকোর্ট অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে।

হাইকোর্ট ইতোমধ্যে এ বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে।  এছাড়া একাধিক আর্থিক অনিয়মের বিষয়ে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত হওয়ার খবর পেয়ে তিনি তার ঘনিষ্ঠ, মিত্র দেশগুলোকে মাঠে নামিয়েছেন বলে একাধিক কূটনৈতিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

জানা যায়, ড. ইউনূস যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় আবারও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করার জন্য তৎপরতা শুরু করেছেন। এক্ষেত্রে দল হিসেবে ‘গণ অধিকার পরিষদ’কে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসিয়ে তিনি রাষ্ট্রপতি হতে চান। এজন্য তিনি গণ অধিকার পরিষদের সাথে কয়েকবার বৈঠক করেছেন বলেও জানা গেছে।

সূত্র বলছে, পশ্চিমা দেশগুলোকে নানা সুবিধা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েই ড. ইউনুসের নেতৃত্বে গণ অধিকার পরিষদ ক্ষমতায় আসার চেষ্টা চালাচ্ছে।তাই ওই দেশেগুলোর দূতাবাস এখন বাংলাদেশে তাদের পক্ষে তৎপরতা শুরু করেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, পশ্চিমা মদদপুষ্ট হয়ে নূর ও তার গণ অধিকার পরিষদের উপর ভর করে ড. ইউনূস  ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশে উগ্রবাদীদের উত্থান ঘটবে এবং দেশ বড় ধরণের নিরাপত্তা ঝুঁকিতে পড়বে। তাই এদের ঠেকাতে দ্রুতই সরকারকে পদক্ষেপ গ্রহণ করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশ্লেষকরা।

বিষয়ঃ বাংলাদেশ

Share This Article


কেউ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি: প্রধানমন্ত্রী

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

আগামী সপ্তাহে থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

৯৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ: আবেদন যেভাবে

গরম নিয়ে যে দুঃসংবাদ দিল আবহাওয়া অফিস

‘৮ হাজার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদ বাতিল’

গরমে গতি কমিয়ে ট্রেন চালানোর নির্দেশ

ইরান-ইসরায়েল যুদ্ধের প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

তৃতীয় ধাপে ১১২ উপজেলায় ভোট ২৯ মে

২১ নাবিক জাহাজে, ২ জন দেশে আসবেন বিমানে

বাজেটে থোক বরাদ্দের প্রস্তাব না করতে নির্দেশনা

প্রধানমন্ত্রীর সৌদি আরব ও গাম্বিয়া সফর বাতিল