স্বাধীনতা থেকে আজ : আওয়ামীলীগের ঐতিহাসিক মূল্য

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:২৪, বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন, ২০২২, ৯ আষাঢ় ১৪২৯
ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

১৯৪৯ সালে যখন আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত হয় তখন দলটির কাঁধে ছিলো ছিলো স্বাধীন করার বিশাল দ্বায়ভার। এরপর নানান চড়াই উৎরাই পেরিয়ে ১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে স্বাধীন হয় বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগের ঝুড়িতে ওঠে বিশাল এক সফলতা। জন্মের ৭৩ বছর  পেরিয়ে এই দলটি দেশের রাষ্ট্র ক্ষমতায়। অনেক সফলতার মাঝে কয়দিন পর পদ্মাসেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে আরেকটি ঐতিহাসিক সফলতা যুক্ত হচ্ছে দলটির ঝুড়িতে।  

 

উপমহাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন এই দলটির সফলতার শুধু এটুকুই নয়। ৭ কোটি জনগণ থেকে আজ ১৭ কোটি জনগনের নেতৃত্ব দিচ্ছে দলটি।  

১৯৪৯ সালের ২৩শে জুন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া দলটি নেতৃত্ব দিয়েছিলো বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসাধারণ নেতৃত্বে পাকিস্তান থেকে আলাদা হয়ে ১৯৭১ সালে একটি নতুন দেশ জন্ম লাভ করে। এ কারণেই বাংলাদেশ নামটির সাথে আওয়ামী লীগ নামটিও অবশ্যিক ও ঐতিহাসিক মূল্যে অপরিহার্য রূপে বিবেচিত হয়।

আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠায় যাদের অগ্রণী ভূমিকা ছিল তারা হলেন, মজলুম জননেতা মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং অকালপ্রয়াত নেতা শামসুল হক। এই দল প্রতিষ্ঠার মূল লক্ষ্যই ছিলো বাঙ্গালি জাতীর অধিকার প্রতিষ্ঠা।

৫২-এর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৫৪-এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬২-এর সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন,৬৬-তে বঙ্গবন্ধুর ৬ দফা, ৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান,৭০-এর নির্বাচন এবং ৭১ সালের স্বাধীনতা আন্দোলন, সবগুলোর নেতৃত্বই দিয়েছিল আওয়ামী লীগ।

বাঙালী জাতির অধিকার প্রতিষ্ঠায় রাজপথই ছিল আওয়ামীলীগ এর ঠিকানা। শুধু স্বাধীনতা আন্দোলনই নয়, স্বাধীনতার পরবর্তী সবকটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকদের হাতে বঙ্গবন্ধু স্বপরিবারে নিহত হওয়ার পর এদেশের ক্ষমতা চলে যায় স্বাধীনতা বিরোধীদের হাতে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালে দেশে এসে আওয়ামী লীগের হাল ধরেন। এরপর থেকে তার নেতৃত্বেই আওয়ামী লীগ পরিচালিত হচ্ছে।তিনিও বঙ্গবন্ধুর মতো পরবর্তী আন্দোলনগুলোর নেতৃত্ব দিয়েছেন।

বিশেষ করে, ১৯৮৭ সালের এরশাদ বিরোধী আন্দোলন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে আন্দোলন ও ১/১১’র সেনা শাসিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছে। এছাড়া সর্বশেষ চারবার সহ পঞ্চমবারের মতো রাষ্ট্র পরিচালনা করছে স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতৃত্ব দেওয়া এই দলটি। এই দলটির নেতৃত্বেই ভাগ্য পরিবর্তনের মাধ্যমে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ।

Share This Article

শরিকদের সাথে প্রতারণা, ভরাডুবি হলে সব দায় বিএনপির !

গণতন্ত্র মঞ্চ: ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

নির্বাচন কমিশনে চিরুনি অভিযান:সর্ষেই ভুত!

বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন:সময় না পেরুতেই বেকায়দায় আন্দোলনের সঙ্গীরা!

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচার প্রচেষ্টায় গুরুত্ত্ব দিচ্ছে না!

যেভাবে বিশ্ব রাজনীতিতে প্রভাব ফেলছে বাংলাদেশ!

দুই মার্কিন কর্মকর্তার ঢাকা সফর: নতুন উচ্চতায় বাংলাদেশ-মার্কিন সম্পর্ক

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে বিদ্যুতের দাম কেমন?

কয়লার দামে আদানির কারসাজি: বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তির সংশোধন চায় বাংলাদেশ

উপনির্বাচনের প্রার্থী হিরো আলম নাকি বিএনপি?


রাজস্ব আদায়ে আরো উদ্যমী হোন, এনবিআরকে প্রধানমন্ত্রী

আজ এনবিআর ভবন ও রাজস্ব সম্মেলন উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

লাইব্রেরিতে পড়াশোনার পরিবেশ সৃষ্টিতে মনোযোগী হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকায় আসছেন মালয়েশিয়ার মন্ত্রী, সহজ হচ্ছে কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া!

দেশে সরিষার বাম্পার ফলন, অর্থনীতিতে নতুন সম্ভাবনা

কিছু না পেয়ে এখন পাঠ্যপুস্তকের ভুলকে ইস্যু বানাচ্ছে বিএনপি

রাষ্ট্রদূত মুহিত জাতিসংঘ শান্তি বিনির্মাণ কমিশনের সহ-সভাপতি নির্বাচিত

বিশ্বজুড়ে কোভিডে আক্রান্ত ও মৃত্যু বেড়েছে

মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে আমরা কাজ করে যাচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী

এ দেশের কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

রূপগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশস্থল নেতাকর্মীতে পরিপূর্ণ

পদত্যাগ করেছিলেন বিএনপির হয়ে এবার নির্বাচিত হলেন স্বতন্ত্র থেকে