বিএনপিতে বাম-ডানপন্থী বিভেদের আওয়াজ!

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৫:০৮, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ, ২০২৪, ১৪ চৈত্র ১৪৩০

দীর্ঘ ১৭ বছর রাষ্ট্র ক্ষমতার বাহিরে মাঠের বিরোধীদল বিএনপি। দলটি কোনো আন্দোলনেই সফলতার মুখ দেখছে না। আর কারণ হিসেবে দলটির নেতারা একেক সময় একেক কথা বলেছেন। কখনো সরকারের ওপর দোষারোপ কখনো বা অভ্যন্তরীণ নানান সমস্যার চিত্র ফুটে উঠেছে ব্যর্থতার কারণ হিসেবে। তবে এবার দলটির শীর্ষ এক নেতার মুখে সামনে এলো দলের নেতাদের মাঝে রাজনৈতিক আদর্শের মতপার্থক্যের বিষয়টি।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির ইফতার মাহফিলে দলটির ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন বলেন, ‘বামপন্থীদের দিয়ে বিএনপি হবে না। বিএনপি হবে মধ্যপন্থী, ডানপন্থী ও ইসলামপন্থী মানুষদের নিয়ে।’ উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন। তবে তিনি এবিষয়ে কোন কথা বলেননি।

প্রসঙ্গত বামপন্থী নেতাদেরকে বিএনপিতে 'ভারত ঘেঁষা' হিসাবে বিবেচনা করা হয়।আর ভারত ঘেঁষা নেতাদের দিয়ে 'আওয়ামী লীগ সরকার' বিরোধী আন্দোলন সফল হবেনা বলে মনে করেন মীর নাসিরসহ বিএনপির একাধিক শীর্ষ নেতা। কেননা ভারত ঘেঁষা হবার কারণে তাদের সাথে কোন না কোনোভাবে ভারতের গোপন যোগাযোগ থাকতে পারে বলে মনে করেন অনেকেই।

প্রসঙ্গত, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, যিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ছিলেন, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানও ছিলেন সাবেক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি, প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকাও ছিলেন বাম রাজনীতির সাথে যুক্ত। বিএনপিতে এমন একডজন প্রভাবশালী নেতা রয়েছেন যাদের দলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। আর মীর নাসির মূলত তাদের ব্যর্থতাকে সামনে আনতেই এমন মন্তব্য করেন।

এছাড়া সম্প্রতি ‘ভারতীয় পণ্য বয়কট’ আন্দোলনে বিএনপির কতিপয় নেতা সংহতি প্রকাশ করলেও দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহন করতে কয়েকজন বামপন্থী নেতার  অভ্যন্তরীন বাধার মুখে পড়তে হয়েছে বলে জানা গেছে। আর এসব কারণেই দলটির একাংশ তাদের প্রতি ক্ষুব্ধ হয় বলেই এখন  প্রকাশ্যে  এমন মন্তব্য আসতে শুরু করেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

Share This Article


উপজেলা নির্বাচন বর্জন : লাভের চাইতে ক্ষতি বেশি বিএনপির!

উপজেলা নির্বাচন নিয়ে সংকটে বিএনপি: প্রকাশ্য বিদ্রোহ!

ফের কূটনীতিকদের দৌড়ঝাঁপ: ব্রিটিশ ও মার্কিন কূটনীতিকদের তৎপরতা শুরু!

বিশ্ববাজারে ভোজ্য তেলের দাম কি কমেছে?

দেশের মানুষের ‘নিরাপত্তা’ নিয়ে ইউনুসের দুশ্চিন্তা: সোশ্যাল মিডিয়ায় হাস্যরস!

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় দিন ১৭ এপ্রিল

আন্দোলন নিয়ে শরিকদের কোনো দিক নির্দেশনা দিতে পারছে না বিএনপি!

কখনোই যাকাত-ফেতরা দেননা ড. ইউনুস!

বিএনপির আন্দোলনে জনসম্পৃক্ততা ছিলো না বলেই সরকার পতন হয়নি: শিবির সভাপতি

পুরস্কার নিয়ে ড. ইউনূসের চালাকিতে ইউনেস্কোর বিস্ময়!

মুজিবনগর সরকারের দক্ষতায় ৯ মাসে হানাদার মুক্ত হয় বাংলাদেশ

সামরিক শাসকের অধীনে রাজনীতিতে যুক্ত হওয়া ইউনূসের মুখে গণতন্ত্র!