গাজায় স্থায়ী যুদ্ধ বিরতির দাবিতে হোয়াইট হাউজের সামনে অনশন

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১০:২৮, মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২৩, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০

গাজায় স্থায়ী যুদ্ধ বিরতির দাবিতে হোয়াইট হাউজের সামনে সোমবার অনশন শুরু করেছেন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং খ্যাতনামা চিত্র-তারকারা। ইসরায়েলকে যুদ্ধবিরতিতে বাধ্য করতে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের ওপর চাপ প্রয়োগের অভিপ্রায়ে ৫ দিনের এই অনশন কর্মসূচির সংবাদ শীর্ষস্থানীয় সকল গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশ ও প্রচার পাচ্ছে। 

উল্লেখ্য, অনশনে অংশগ্রহণকারী কংগ্রেসম্যান এবং স্টেট সিনেটর-অ্যাসেম্বলিম্যানদের প্রায় সকলেই বামপন্থি হিসেবে পরিচিত। 

আরও উল্লেখ্য, চলমান চারদিনের যুদ্ধ বিরতির শেষ দিনে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছিল। এমনি অবস্থায় আরও দুইদিন বৃদ্ধি পাওয়ায় অনশনকারীরা আরো অনড় অবস্থানে গেছেন বলে জানা গেছে। অনশন শুরুর সময়ে হোয়াইট হাউজের সামনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে ইসরায়েলকে অকুণ্ঠ সমর্থন দানের জন্য প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও তার নীতি-নির্ধারকদের কঠোর সমালোচনা করা হয়। বাইডেনের আস্কারায় ইসরায়েলের লাগাতার হামলায় গাজায় এ যাবত ৬ হাজারের অধিক শিশু ও নারীসহ ১৫ সহস্রাধিক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন বলেও গাজাস্থ স্বাস্থ্য প্রশাসনের উদ্ধৃতি দিয়ে উল্লেখ করা হয়। এমনকি ইসরায়েলি বোমায় রোগীসহ হাসপাতাল নিশ্চিহ্ন হয়েছে। গাজায় চিকিৎসা-ব্যবস্থা ভেঙ্গে গেছে। বিদ্যুৎ নেই, চিকিৎসা নেই, খাবার পানির সংকট, খাদ্য-সামগ্রির অভাবে লাখ লাখ ফিলিস্তিনি অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন বলে উল্লেখ করে অনশনরত স্টেট অ্যাসেম্বলি ম্যান (নিউইয়র্ক-ডেমক্র্যাট) জোহরান মামদানী বলেন, আমরা সে সব অসহায় মানুষের সাথে সংহতি প্রকাশ করে অনশন শুরু করলাম। বাইডেনসহ সচেতন বিশ্ব দেখুক কী ধরনের পরিস্থিতিতে নিপতিত হয়েছেন ফিলিস্তিনের বেসামরিক নাগরিকেরা। 

 

জনপ্রিয় অভিনেত্রী এবং সোস্যালিস্ট ডেমক্র্যাট হিসেবে পরিচিত সিনথিয়া নিক্সন এ সময় বলেন, ৭ অক্টোবর হামাস যোদ্ধাদের অতর্কিত হামলায় ১২ শতাধিক ইসরায়েলি নিহত এবং দুই শতাধিক অপহৃত হবার প্রতিশোধ হিসেবে ইসরায়েলিরা যে বর্বরতা চালাচ্ছে তা হামাসের চেয়েও ভয়ংকর সন্ত্রাসে পরিণত করেছে। এমন আচরণকে যুদ্ধাপরাধের সামিল বলে গণ্য করা উচিত। জুইশ সন্তানের মা হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিয়ে সিনথিয়া আরও বলেন, গত ২০ বছরে আফগানিস্তানে যুদ্ধের নামে মার্কিন বাহিনী যত মানুষ হত্যা করেছে, ৭ সপ্তাহে ইসরায়েলিরা তার চেয়ে বেশী ফিলিস্তিনিকে হত্যা করলো গাজা উপত্যকায়। এহেন অবস্থায় আমি বিচলিতবোধ করছি। খুবই কষ্ট পাচ্ছি। বেসামরিক নাগরিকদের এভাবে হত্যা অব্যাহত রাখতে দেয়া সমীচিন নয়। 

সিনথিয়া উল্লেখ করেন, গত বছর বিশ্বের দুই ডজনের মত রণক্ষেত্রেও ৬১৫০ শিশু নিহত হবার ঘটনা ঘটেনি-যা ৭ সপ্তাহে গাজায় ইসরায়েলিরা ঘটিয়েছে। গাজায় এখন বসবাসের উপযোগী একটি বাড়িও নেই। সব ধ্বংস হয়েছে ইসরায়েলের বোমা বর্ষণে। এমন অবস্থাকে কোনভাবেই স্বাভাবিক হিসেবে গণ্য করার সুযোগ নেই। প্রেসিডেন্ট বাইডেনের উদ্দেশ্যে অভিনেত্রী সিনথিয়া আরও বলেন, গাজায় নিহত শিশুরা যদি আপনার সন্তান হতো, তাহলে কেমন বোধ করতেন। তাই বিনয়ের সাথে আবেদন জানাচ্ছি চলমান যুদ্ধ বিরতি দীর্ঘতর করুন। 

নিউইয়র্কের অ্যাসেম্বলিম্যান মামদানি বলেছেন, ইসরায়েলে সামরিক সহযোগিতার জন্যে প্রেসিডেন্ট বাইডেন আরো ১৪ বিলিয়ন ডলারের অনুমোদন চেয়েছেন কংগ্রেসের কাছে। অথচ এই অর্থ ব্যয় করা হবে গাজায় গণহত্যায়। জাতিসংঘের বেশ কয়েকটি সংস্থার পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে যে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ ও সামরিক সহায়তার পুরোটাই ব্যয় করা হচ্ছে ফিলিস্তিনিদের নির্মূলের অভিযানে। হামাস নির্মূলের নামে একটি জনগোষ্ঠির বিরুদ্ধে এই অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা থাকা উচিত নয়। 
আমেরিকার সর্বত্র প্রতিবাদ-সমাবেশের মধ্যেই শুরু এই অনশনে জুইশ সংগঠনের নেতারাও অংশ নিয়েছেন। জুইশরাও গাজায় ইসরায়েলিদের বর্বরতার নিন্দা জানাচ্ছেন। এই অনশন কর্মসূচির আয়োজক সংস্থার মধ্যে রয়েছে ক্যাম্পেইন ফর প্যালেস্টিয়ান রাইটস, দ্য আডাল্লাহ জুইশ প্রজেক্ট, জুইশ ভয়েস ফর পীচ, ইফ নট নাও, ড্রিম ডিফেন্ডারস, ডেমক্র্যাটিক সোস্যালিস্টস অব আমেরিকা, ইন্সটিটিউট ফর মিডল ইস্ট আন্ডারস্ট্যান্ডিং এবং আমেরিকান আরব এন্টি-ডিসক্রিমিনেশন কমিটি।
এদিকে, নির্বাচনী এলাকার মানুষের সাথে সোমবার এক টাউন হল মিটিংয়ে কংগ্রেসওম্যান আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিয়ো করটেজ বলেছেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেনের দেয়া অর্থ ফিলিস্তিনিদের মানবাধিকার লংঘনের কাজে ব্যবহার করছে ইসরায়েলিরা-এটা মেনে নেয়া যায় না। হামাসের জঙ্গি তৎপরতা ঠেকানোর নামে ফিলিস্তিনের নিরস্ত্র শিশু-নারীসহ বেসামরিক নাগরিকদের হত্যাযজ্ঞকে প্রশ্রয় দেয়া কখনোই সমীচিন হতে পারে না। গাজায় ইসরায়েলিরা যা করছে তা স্পষ্টতই যুদ্ধাপরাধের সামিল বলেও মন্তব্য করেছেন নিউইয়র্কের ব্রঙ্কস এলাকা থেকে নির্বাচিত ডেমক্র্যাটিক পার্টির এই কংগ্রেসওম্যান। 

Share This Article

রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণসহ প্রধানমন্ত্রীর ১৫ নির্দেশনা

জলবায়ু পরিবর্তনে দেশে তাপমাত্রা বেড়ে যাচ্ছে : গবেষণা

রাখাইনে ৮০ জান্তা সৈন্যকে হত্যার দাবি আরাকান আর্মির

সিলেট বিমানবন্দরের উন্নয়ন কাজের গতি বাড়ানোর নির্দেশ মন্ত্রীর

উন্নয়ন দেখতে কক্সবাজার যাচ্ছেন সব দেশের রাষ্ট্রদূত

এবার ন্যাটোর সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধের হুমকি রাশিয়ার

বাংলাদেশের তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গে ভারতের বিমানবাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

বিদ্যুৎ উৎপাদনে গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ব্যাখ্যা দিল মন্ত্রণালয়

সংরক্ষিত ৫০ নারী এমপির গেজেট প্রকাশ

বিদ্যুৎ-গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয়ে যে যুক্তি দিলেন প্রতিমন্ত্রী


একই দিনে মেক্সিকো সীমান্তে যাচ্ছেন বাইডেন ও ট্রাম্প

১০ হাজার পণ্যের দাম কমেছে আরব আমিরাতে

গাজায় যুদ্ধ নয়, গণহত্যা চলছে : ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

ওমরা পালনে শিশুদের নিয়ে সৌদির নির্দেশনা

এবার সাউথ ক্যারোলাইনায় নিকি হ্যালিকে হারালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ইয়েমেনে নতুন করে ১৮ লক্ষ্যবস্তুতে হামলা যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের

ইউক্রেন যুদ্ধের দ্বিতীয় বার্ষিকীতে কিয়েভে পশ্চিমা নেতারা

পবিত্র রমজানে সেহরি ও ইফতার নিয়ে যেসব নির্দেশনা সৌদির

দুই সপ্তাহের মধ্যে সরকার গঠন ও প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে চায় পাকিস্তান

ইউক্রেনের চেয়ে গাজায় ৬ গুণ বেশি নারী-শিশু নিহত

আসামে ৯০ বছরের পুরনো মুসলিম আইন বাতিল

গাজায় ইসরাইলি হামলায় আরও শতাধিক ফিলিস্তিনি নিহত