শাশ্বত বাংলার গর্বকে শুভেচ্ছা জানালেন নিপুণ

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৩:৪৭, বুধবার, ১৫ জুন, ২০২২, ১ আষাঢ় ১৪২৯

বাংলা সিনেমার জীবন্ত কিংবদন্তি চিত্রনায়িকা শাবানা। অভিনয়ে না থাকলেও তার কাজ দিয়ে তিনি আছেন সবার হৃদয়ে। পারিবারিক নাম আফরোজা সুলতানা রত্মা হলেও সবাই তাকে চেনে শাবানা নামেই। আজ এই অভিনেত্রীর জন্মদিন।

 

কিংবদন্তির এই শিল্পীর জন্মদিনে তাকে শুভেচ্ছা জানালেন আরেক চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। শাবানার সঙ্গে একটি ছবি শেয়ার করে এই অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘শা = শাশ্বত। বা = বাংলার আর না = নাজ (গর্ব)।’

নিপুণ আরও বলেন, ‘জননন্দিত অভিনেত্রী- একজন শাবানা। আমাদের প্রেরণাদায়িনী। লাবণ্যময়ী, কিংবদন্তি, মাতৃপ্রতিম। এই মহান শিল্পীর আজ শুভ জন্মদিনে আমাদের বিনম্র শ্রদ্ধা। আপনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু করছি।’

উল্লেখ্য, ১৯৫২ সালের ১৫ জুন চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার ডাবুয়া গ্রামে শাবানার জন্ম। ঢাকার গেন্ডারিয়া হাই স্কুলে ভর্তি হলেও মাত্র ৯ বছর বয়সে তার শিক্ষা জীবনের ইতি ঘটে। ১৯৬২ সালে ‘নতুন সুর’ সিনেমায় শিশুশিল্পী হিসেবে শোবিজে তার আগমন। ওই সময়ও তার নাম ছিল রত্না। এরপর বেশ কিছু সিনেমায় নৃত্যশিল্পী ও অতিরিক্ত শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন তিনি। সহ-নায়িকা চরিত্রে দেখা যায় ‘আবার বনবাসে রূপবান’ ও ‘ডাক বাবু’ সিনেমায়। ১৯৬৭ সালে এহতেশাম পরিচালিত ‘চকোরী’তে চিত্রনায়ক নাদিমের বিপরীতে নায়িকা হয়ে পর্দায় আসেন এই অভিনেত্রী। রত্না তখন হয়ে যান শাবানা।

এরপর থেকে শাবানাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। তিন দশকের ক্যারিয়ারে নাদিম, রাজ্জাক, আলমগীর, ফারুক, জসীম, সোহেল রানার সঙ্গে জুটি বেঁধে শাবানা উপহার দেন জনপ্রিয় অসংখ্য সিনেমা।

তার উল্লেখ্যযোগ্য সিনেমাগুলোর তালিকায় আছে- ‘ভাত দে’, ‘অবুঝ মন’, ‘ছুটির ঘণ্টা’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘সত্য মিথ্যা’, ‘রাঙা ভাবী’, ‘বাংলার নায়ক’, ‘ওরা এগারো জন’, ‘বিরোধ’, ‘আনাড়ি’, ‘সমাধান’, ‘জীবনসাথী’, ‘মাটির ঘর’, ‘লুটেরা’, ‘সখি তুমি কার’, ‘কেউ কারো নয়’, ‘পালাবি কোথায়’, ‘স্বামী কেন আসামি’, ‘দুঃসাহস’, ‘পুত্রবধূ’, ‘আক্রোশ’ ও ‘চাঁপা ডাঙার বউ’।

অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে শাবানা ১০বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। এ ছাড়াও পেয়েছেন আজীবন সম্মাননা। এর পাশাপাশি তো থাকছেই বিভিন্ন সম্মাননা।

১৯৭৩ সালে সরকারি কর্মকর্তা ওয়াহিদ সাদিককে বিয়ে করেন শাবানা। দুজন মিলে গড়ে তোলেন প্রযোজনা সংস্থা এসএস প্রোডাকশন। ওই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ব্যানারে নির্মিত হয়েছে অনেক জনপ্রিয় সিনেমা।

১৯৯৭ সালে অজানা কারণে সিনেমা থেকে বিদায় নেন শাবানা। ২০০০ সাল থেকে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে বসবাস করছেন তিনি। এরপর বেশ কয়েকবার বাংলাদেশে আসলেও জনসম্মুখে দেখা যায়নি এ অভিনেত্রীকে।

Share This Article

মুজিব কর্নার থেকে বঙ্গবন্ধুকে জানবে নতুন প্রজন্ম

‘গণতন্ত্র হত্যা করে বিএনপি আবার গণতন্ত্রের গল্প শোনায়’

ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট হবে স্বাস্থ্যসেবা

কিছু না পেয়ে এখন পাঠ্যপুস্তকের ভুলকে ইস্যু বানাচ্ছে বিএনপি

শিগগিরই বাংলাদেশে ক্যাম্পাস খুলছে মালয়েশিয়ার ইউসিএসআই

বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন:সময় না পেরুতেই বেকায়দায় আন্দোলনের সঙ্গীরা!

গণতন্ত্রের প্রতীক আফগান নারী কৌঁসুলিরা এখন স্পেনের শরণার্থী

নির্বাচন কমিশনে চিরুনি অভিযান:সর্ষেই ভুত!

পাঠ্যবই পৌঁছাতে দেরি হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রে নারী কাউন্সিলরকে গুলি করে হত্যা