জেনারেটরে নিষেধাজ্ঞা ও সৌরশক্তির ব্যবহার বৃদ্ধি আবশ্যক!

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:০৯, শুক্রবার, ২২ জুলাই, ২০২২, ৭ শ্রাবণ ১৪২৯

আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির কারণে অস্বাভাবিক পরিস্থিতিতে পড়েছে বিশ্ব।

আমদানিকৃত জ্বালানির উপর নির্ভরতার কারণে বাংলাদেশও সংকটে পড়তে পারে।

সম্ভাব্য সংকট  সামাল দিতে সরকার তাই দেশে  আগাম নানান সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

কেনাকাটা, আমদানি,পেট্রোল পাম্প নিয়ন্ত্রণ,রাত ৮ টার পর মার্কেট বন্ধ ও লোডশেডিং পরিকল্পনাসহ  বেশ কিছু নির্দেশনা তারই অংশ।

তবে নির্দেশনা জারি করলেও  সরকারের একার পক্ষে সম্ভাব্য  সংকট সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

তারা বলছেন, সাধারণ মানুষ সচেতন না হলে কোন ভাবেই  সরকারের  পক্ষে সম্ভাব্য  সঙ্কট মোকাবেলা করা সম্ভব হবে না।

উদাহরণস্বরূপ,রাজধানিসহ দেশের বড় শহরগুলোর বাণিজ্যিক ভবনগুলোতে লোডশেডিং বা বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ক্ষেত্রে স্বয়ংক্রিয় জেনারেট পদ্ধতি চালু রয়েছে।

এছাড়া শহরের আবাসিক ভবনও ছোট জেনারেটর সুবিধা গ্রহণ করে যার অধিকাংশই জ্বালানি সাশ্রয়ী নয়।

তাই সরকারের পরিকল্পিত লোডশেডিংয়ের সময় জেনারেটরের ব্যবহার বেড়ে গেলে লোডশেডিং পরিকল্পনা কার্যকর হবে না।

কেননা ওইসব ভবনে জেনারেটর চলবে,যাতে প্রচুর জ্বালানি খরচ হবে।

এমতবস্থায় আরও বেশি জ্বালানি সংকট তৈরি হবে।তাই এসব ভবনে জেনারেটর এর স্থলে সৌর প্যানেল ব্যবহার বাড়াতে হবে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সরকারকে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হলে জ্বালানি শক্তির অপব্যবহার হয় এমন সবধরণের জেনারেটরের উপর নিষেধাজ্ঞা দিতে হবে।

এছাড়া পানি ও গ্যাস ব্যবহারেও সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

আর এইসবগুলো বিষযের বাস্তবায়ন ও সফলতা নির্ভর করছে সাধারণ মানুষের সহযোগিতার উপর।

এবিষয়ে পরিবেশ বিষয়ক অর্থনীতিবিদ এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্লিন এনার্জি ফেলো শফিকুল আলম বলেন, চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকারের নেওয়া সিদ্ধান্তগুলো ভালো। তবে জনগণকে সচেতন আচরণের সাথে তাদের ভূমিকা পালন করতে হবে।

সেই সাথে আমদানি নির্ভরতার পরিবর্তে সৌর শক্তির স্থাপনা বৃদ্ধি এবং স্থানীয় গ্যাস অনুসন্ধান বাড়ানোর উপরও জোর দেন এই বিশ্লেষক।

Share This Article

শরিকদের সাথে প্রতারণা, ভরাডুবি হলে সব দায় বিএনপির !

গণতন্ত্র মঞ্চ: ভাগবাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

সমালোচকদের মুখে ছাঁই দিয়ে বাংলাদেশের আইএমএফ এর ঋণ জয়

নির্বাচন কমিশনে চিরুনি অভিযান:সর্ষেই ভুত!

বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন:সময় না পেরুতেই বেকায়দায় আন্দোলনের সঙ্গীরা!

যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ বিরোধী অপপ্রচার প্রচেষ্টায় গুরুত্ত্ব দিচ্ছে না!

যেভাবে বিশ্ব রাজনীতিতে প্রভাব ফেলছে বাংলাদেশ!

দুই মার্কিন কর্মকর্তার ঢাকা সফর: নতুন উচ্চতায় বাংলাদেশ-মার্কিন সম্পর্ক

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে বিদ্যুতের দাম কেমন?

কয়লার দামে আদানির কারসাজি: বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তির সংশোধন চায় বাংলাদেশ


আগামী সপ্তাহে সংসদীয় আসনগুলোর সীমানার খসড়া প্রকাশ: ইসি

বিশ্বের শীর্ষ ১০০ লিড সার্টিফাইড গ্রিন ফ্যাক্টরির অর্ধেকই বাংলাদেশে

তুরস্কে চিকিৎসক ও উদ্ধারকারী দল পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ

শেখ হাসিনার আমলে সড়ক ব্যবস্থার বৈপ্লবিক পরিবর্তন দৃশ্যমান: ওবায়দুল

ড. মসিউর রহমান ও ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী -ফাইল ছবি

রাষ্ট্রপতি পদে শেষ মুহূর্তের আলোচনায় মসিউর রহমান-শিরীন শারমিন

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে বেলজিয়ামের রানি

বাংলাদেশে বেলজিয়ামের রানি: পোশাক শিল্পের জন্য একটি মাইলফলক

তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প: রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক

মার্চে খুলে যাবে বঙ্গবন্ধু টানেল: মিলবে যেসব সুফল

সৌদি আরব বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু : স্পিকার

টাইম ম্যাগাজিন প্রতিবেদন:শেখ হাসিনা দেখিয়েছেন বাংলাদেশ পারে

ওষুধের লাইসেন্সহীন উৎপাদন-মজুদ-ভেজালে কঠোর সাজা