বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন আবারো বিফলে যাবে: হানিফ

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৭:৩৬, মঙ্গলবার, ২৮ মার্চ, ২০২৩, ১৪ চৈত্র ১৪২৯

বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন আগেও বিফলে গেছে, আবারো বিফলে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

 

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া দল। বঙ্গবন্ধকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে। এই সরকারের পতন ঘটানোর শক্তি বিএনপি-জামায়াত বা একাত্তরের পরাজিত শক্তি, তাদের দোসর কারো নেই। তাদের আন্দোলন আগেও বিফলে গেছে, আবারো বিফলে যাবে।

মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি অডিটোরিয়ামে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে উপজীব্য করে সরকারি অনুদানে নির্মিত পূর্ণদৈর্ঘ্য শিশুতোষ চলচ্চিত্র ‘মাইক’-এর বিশেষ প্রদর্শনী অনুষ্ঠান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

‘গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের পতন হবে’- বিএনপি নেতা খন্দকার মোশরফ হোসেনের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে হানিফ বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্ম এখন অনেক সচেতন। তারা ইতিহাস জানে। তারা জানে এই বিএনপি একাত্তরের পরাজিত শক্তি পাকিস্তানের দোসর হিসেবে কাজ করছে। তারা স্বাধীনতার চেতনায় বিশ্বাস করে না, দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান। আন্দোলন, গণঅভ্যুত্থান করে আওয়ামী লীগ সরকারের পতন ঘটানো যাবে না। কারণ তারা সরকারের পতন ঘটানোর ক্ষমতা রাখে না।

তিনি বলেন, জাতির পিতার ৭ মার্চের ভাষণই মূলত স্বাধীনতার ডাক বা ঘোষণা। কারণ ভাষণের পরই গোটা বাঙালি জাতি যুদ্ধের প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছিল।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ জাতি, দেশ সৃষ্টি করার ভাষণ ছিল বলে উল্লেখ করেন হানিফ।  তিনি বলেন, আমাদের মুক্তিযুদ্ধের অনুপ্রেরণা। বিশ্বখ্যাত এ ভাষণের সঙ্গে অন্য ভাষণের তুলনা হতে পারে না। এই ভাষণ পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ ভাষণ হিসেবে বিবেচিত হবে।

আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর একাত্তরের পরাজিত শক্তি জাতির পিতার সমস্ত স্মৃতি মুছে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। জয় বাংলা নিষিদ্ধ ছিল, ৭ মার্চের ভাষণ ও বঙ্গবন্ধুর ছবি নিষিদ্ধ ছিল। আজকে তারাই সকাল-বিকাল গণতন্ত্রের কথা বলে, গণতন্ত্রের সবক দেয়।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে কেন্দ্র করে নির্মিত ‘মাইক’ সিনেমার প্রশংসা করে হানিফ বলেন, সিনেমাটি অসাধারণ হয়েছে। পঁচাত্তরের পরে ইতিহাসকে উল্টোপথে চালানোর চেষ্টা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নাম-নিশানা মুছে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছিল। যার কারণে প্রজন্ম ভুল ইতিহাস জানত, সঠিক ইতিহাস জানত না।

তিনি বলেন, মাইক সিনেমায় সঠিক ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে। সিনেমাটি ইতিহাসের মাইলফলক, ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।

মাইক সিনেমার শিশুশিল্পীদের প্রশংসা করে হানিফ বলেন, শিশুশিল্পীদের অভিনয় দেখে মনে হয়নি আমরা দূর থেকে দেখেছি। এত সাবলীল অভিনয় ছিল। মাইকের মতো ইতিহাসনির্ভর সিনেমা আরও হওয়া প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুর, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, কার্যনির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, কবি অসীম সাহা, ‘মাইক’ চলচ্চিত্রের অভিনেত্রী তানভিন সুইটি, অভিনেতা নাদের চৌধুরী, শিশুশিল্পী সানজিদ রহমান খান, আলী আবদুল্লাহ দাইয়ান ভূঁইয়াসহ চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন।
 

Share This Article


দেশে দেশে কোটা ব্যবস্থা

দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিটের ছাত্রদের মেধার এতো অধঃপতন!

শিক্ষার্থী আন্দোলন ফায়দা লোটার আত্মঘাতী কৌশল

যুক্তরাজ্যে থাকতে হলে রাজনীতি ছাড়তে হবে তারেককে!

কোটা ইস্যুতে কাউকে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে দেবে না ছাত্রলীগ

আপিল বিভাগের রায়ের আগে সরকার কোটা নিয়ে কিছু করবে না

কোটা বিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্ব নিয়ে বিবিসির চাঞ্চল্যকর তথ্য!

ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি ভর করেছে: কাদের

শিক্ষার্থীরা সর্বোচ্চ আদালতের বিরুদ্ধে শক্তি প্রদর্শন করছেন: ওবায়দুল কাদের

কোটা আন্দোলনের নেতা রাফি: বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন মুক্তিযোদ্ধা কোটায়

সংবিধানের কোন ধারা বলে কোটা: বাতিল করলে তাদের কী হবে?