সাগরের তলদেশ দিয়ে সাবমেরিন ক্যাবলে বিদ্যুৎ যাচ্ছে কুতুবদিয়ায়

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ০৯:৫২, রবিবার, ১৯ মার্চ, ২০২৩, ৫ চৈত্র ১৪২৯

প্রথমবারের মতো বিদ্যুতের আওতায় আসছে মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়া। সাগরের তলদেশ দিয়ে সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ যাবে দ্বীপে।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের আশা, বিদ্যুতের মাধ্যমে দ্বীপের পর্যটন, লবণ, আর মৎস্য খাতে আমূল পরিবর্তনের পাশাপাশি গড়ে ওঠবে শিল্প-কারখানা।

কুতুবদিয়ার প্রায় ২১৫ বর্গকিলোমিটার এলাকায় বর্তমানে প্রায় ২ লাখ মানুষ বাস। এখানে ১৯৮০ সালে জেনারেটরের মাধ্যমে প্রায় ৬শ গ্রাহকের জন্য সান্ধ্যকালীন কয়েক ঘণ্টা বিদ্যুৎ ব্যবস্থা চালু করা হয়। ১৯৯১ সালের ঘূর্ণিঝড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভাঙায় সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন সময় স্বল্প আকারে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হয়। ২০০৫ সালে দেড় কিলোমিটার লাইন মেরামত করে দুটি জেনারেটরের মাধ্যমে উপজেলা সদর ও কিছু এলাকায় সন্ধ্যার পর কয়েক ঘণ্টা করে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে পিডিবি। এছাড়া ২০০৮ সালে কুতুবদিয়ায় এক মেগাওয়াট সক্ষমতার বায়ু বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হলেও তেমন কাজে আসেনি। বর্তমানে এটিও বন্ধ। এসব কারণে এ দ্বীপে বিদ্যুৎ যেন সোনার হরিণ।

দীর্ঘ অপেক্ষার পর জাতীয় গ্রিডের সঙ্গে যুক্ত করে সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো বিদ্যুৎ যাচ্ছে কুতুবদিয়ায়। সবকিছু ঠিক থাকলে চলতি মাসের শেষের দিকে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ যাবে।

পাওয়ার সিস্টেম ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির সাইট ইঞ্জিনিয়ার আল মুজাহিদ বলেন, সাগরের তলদেশ দিয়ে দুই লেনের ৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সাবমেরিন ক্যাবল লাইন স্থাপন এবং ল্যান্ডিং স্টেশনের কাজ শেষ পর্যায়ে। কুতুবদিয়া দ্বীপের অভ্যন্তরীণ বিদ্যুৎ বিতরণ লাইনের কাজ ৬০ ভাগ শেষ হয়েছে। মহেশখালীর মাতারবাড়ীতে কয়লাভিত্তিক যে বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে, সেখানে এরই মধ্যে জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুতের ল্যান্ডিং স্টেশন করা হয়েছে। মাতারবাড়ীর বিদ্যুতের সাব স্টেশন থেকে ওভারহেড সঞ্চালন লাইনের মাধ্যমে মগনামা সাব স্টেশনে বিদ্যুৎ আসবে। সেখান থেকেই সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে কুতুবদিয়ায় জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে।

কুতুবদিয়া বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আবাসিক প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবুল হাসানাত বলেন, কুতুবদিয়া দ্বীপের প্রতিটি বাড়িতে শতভাগ বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে মাত্র ৪ মেগাওয়াটের মতো বিদ্যুতের প্রয়োজন। বর্তমানে কুতুবদিয়া দ্বীপে যে সাব স্টেশন হচ্ছে তাতে ১২ মেগাওয়াটের মতো বিদ্যুতের লোড নেয়ার সক্ষমতা থাকবে। সাধারণ গ্রাহক ছাড়াও কুতুবদিয়ায় জাতীয় গ্রিড থেকে পাওয়া বিদ্যুৎ দিয়ে ফিশ প্রসেসিং, লবণ ও বরফ মিলসহ ক্ষুদ্র ও মাঝারি ধরনের শিল্প-কারখানা স্থাপন করা যাবে। কুতুবদিয়া দ্বীপে বিদ্যুৎ বিভাগের ১৫ হাজার আবাসিক গ্রাহকের মাঝে বিদ্যুৎ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। প্রাথমিকভাবে আড়াই হাজার গ্রাহককে দিয়ে এ বিদ্যুৎ বিতরণ শুরু হবে।

তিনি বলেন, সাবমেরিন ক্যাবল লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুতের জাতীয় গ্রিডের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার পাশাপাশি কুতুবদিয়া দ্বীপ ইন্টারনেটের জাতীয় গ্রিডের সাথেও সংযুক্ত হচ্ছে। কারণ সাবমেরিন ক্যাবলের বিদ্যুতের লাইনের সঙ্গে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলও কুতুবদিয়া দ্বীপে নিয়ে আসা হয়েছে। ফলে কুতুবদিয়া দ্বীপ হাই স্পিড ইন্টারনেটের সুবিধা পাবে। পুরো কুতুবদিয়া দ্বীপ ব্রডব্যান্ডের আওতায় চলে আসবে। ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো এ সুবিধা নিতে পারবে। আশা করি, চলতি মাসের শেষের দিকে এ দ্বীপে জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ সরবরাহ করা যাবে। 

এদিকে সরাসরি বিদ্যুৎ সরবরাহের কারণে কুতুবদিয়ায় পর্যটন, মৎস্য ও লবণ শিল্পের সম্ভাবনার দুয়ার খুলবে বলে আশা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের। আর দ্বীপের বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের দাবি বাস্তবায়ন হচ্ছে দেখে তারা খুশি। এলাকাবাসী জানান, কুতুবদিয়া দ্বীপে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হলে আলোকিত হবেন তারা।

কুতুবদিয়ার বড়ঘোপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম বলেন, কুতুবদিয়া দ্বীপে ফিশ প্রসেসিং জোন, লবণের কারখানা ও বরফের মিল নেই। বিদ্যুৎ আসলে এসব কারখানা হতে আর বাধা নেই। কুতুবদিয়া দ্বীপের বাসিন্দাদের জীবনমানের অনেক উন্নয়ন হবে।

দেশব্যাপী শতভাগ মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আনতে ২০২০ সালে ৪০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘হাতিয়া দ্বীপ, নিঝুম দ্বীপ ও কুতুবদিয়া দ্বীপ শতভাগ নির্ভরযোগ্য ও টেকসই বিদ্যুতায়ন’ প্রকল্প হাতে নেয়া হয়। এ প্রকল্পের কাজ ২০২১-২২ অর্থবছরে শুরু হয়।

Share This Article


জাতীয় পরিচয়পত্র'র পোর্টাল নিয়েও পিনাকীর মিথ্যাচার!

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাবেন প্রধানমন্ত্রী

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

ধর্মনিরপেক্ষতার অপব্যাখ্যা করে বিএনপি-জামায়াত উম্মাদনা সৃষ্টি করেছিল: প্রধানমন্ত্রী

জেনারেল আজিজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সেনাবাহিনী: অর্থমন্ত্রী

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা: ভূরাজনীতির শিকার বাংলাদেশ!

বাসায় ফিরেছেন আইনমন্ত্রী

ইউনূসের বিরুদ্ধে সাড়ে ৯ কোটি টাকা অবৈধ ঋণ দেওয়ার অভিযোগ দুদকে

ঘূর্ণিঝড় রেমাল: সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল

ডয়চে ভেলের একপেশে ও পক্ষপাতমূলক প্রতিবেদনের লক্ষ্য প্রশ্নবিদ্ধ: আইএসপিআর

চট্টগ্রাম এয়ারপোর্টে ৮ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে ফ্লাইট ওঠা-নামা

ধেয়ে আসছে রেমাল: ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত