হেলেনা জাহাঙ্গীরের প্রতারণা মামলার রায় ২০ মার্চ

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ বিকাল ০৩:৩৭, মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ, ২০২৩, ২৯ ফাল্গুন ১৪২৯

আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরের প্রতারণা ও চাঁদাবাজির মামলায় আগামী ২০ মার্চ রায় ঘোষণা করবেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার অ্যাডিশনাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন মামলার যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে রায়ের এ তারিখ ঠিক করেন।

 

মামলায় হেলেনা জাহাঙ্গীর ছাড়াও আরও চারজন আসামি রয়েছেন। তারা হলেন- হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপিটিভি জয়যাত্রা টেলিভিশনের মহাব্যবস্থাপক হাজেরা খাতুন, টেলিভিশনের সমন্বয়ক সানাউল্লাহ নূরী, প্রধান বার্তা সম্পাদক কামরুজ্জামান আরিফ ও স্টাফ রিপোর্টার মাহফুজুর রহমান।

জয়যাত্রা টিভির ভোলা জেলা প্রতিনিধি আবদুর রহমান তুহিন ২০২১ সালের ২ আগস্ট পল্লবী থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, জয়যাত্রা টিভির স্থানীয় সংবাদদাতা হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার জন্য ভোলা জেলার আবদুর রহমান তুহিনের কাছ থেকে ৫৪ হাজার টাকা নেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। প্রতিবেদক হিসেবে রহমান কয়েক মাস কাজ করলেও কোনো বেতন পাননি। অন্যদিকে তার কাছ থেকে প্রতি মাসে তিন হাজার টাকা নেয় টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ। ২০২১ সালের ২১ নভেম্বর আদালতে হেলেনা জাহাঙ্গীরসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক শাহিনুর ইসলাম।

গত বছরের ১৮ এপ্রিল অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলার বিচার চলাকালে আদালত ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

র‌্যাব সদর দফতরের গোয়েন্দা শাখা ও র‌্যাব-১ এর অভিযানে ২০২০ সালের ২৯ জুলাই দিবাগত রাতে রাজধানীর গুলশান-২ এলাকার ৩৬নং রোডের ৫নং বাড়ি ‘জেনেটিক রিচমন্ড’-এ অভিযান পরিচালনা করে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে (৪৯) গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযানে ১৯ বোতল বিদেশি মদ, একটি ক্যাঙ্গারুর চামড়া, একটি হরিণের চামড়া, দুটি মোবাইল ফোন, ১৯টি চেক বই ও বিদেশি মুদ্রা, দুটি ওয়াকিটকি সেট এবং জুয়া (ক্যাসিনো) খেলার সরঞ্জামাদি- ৪৫৬টি চিপস জব্দ করা হয়।

ওইদিনই দিবাগত মধ্যরাতে তার জয়যাত্রা টেলিভিশন স্টেশনেও অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরে রাতেই র‌্যাব-৪ বিটিআরসির সহযোগিতায় মিরপুরে অবস্থিত হেলেনা জাহাঙ্গীরের অনুমোদনহীন জয়যাত্রা টেলিভিশন স্টেশন সিলগালা করে এবং অবৈধ মালামাল জব্দ করে।

পরে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে চারটি পৃথক মামলা দায়ের করা হয়। পৃথক চার মামলায় তাকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নেয়া হয়। ২০২১ সালের নভেম্বর মাসে তিনি জামিন পেয়ে কারামুক্ত হন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ’ নামের একটি সংগঠনের পোস্টার ভাইরাল হলে আলোচনায় উঠে আসেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। পোস্টারে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হেলেনা জাহাঙ্গীর আর সাধারণ সম্পাদক মাহবুব মনিরের নাম উল্লেখ করা হয়। এরপরই আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য পদ হারান হেলেনা জাহাঙ্গীর।

Share This Article


ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার চলবে কি না, জানা যাবে ১২ জুন

দুর্নীতির মামলায় ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু

যৌন হয়রানির প্রমাণ পেলে আইন পেশায় না: অ্যাটর্নি জেনারেল

প্রাথমিকে তৃতীয় ধাপে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণে বাধা নেই

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ: ভাইভা হলেও তদন্তের আগে ফল প্রকাশ নয়

তদন্তে থাকা মামলায় গণমাধ্যমে বক্তব্য বন্ধে আইনি নোটিশ

প্রাথমিকে ৪৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগের কার্যক্রম স্থগিত করলেন হাইকোর্ট

খালেদা জিয়ার কয়লাখনি দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠন শুনানি ৫ আগস্ট

এমপি আনার হত্যা: তিন আসামি ৮ দিনের রিমান্ডে

পি কে হালদারের দুই সহযোগীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল, অনিয়ম তদন্তের নির্দেশ

কনডেম সেলে জামায়াত নেতাদের সুবিধা দিতে রিট হয়ে থাকতে পারে