নোবেল বিজয়ী ড. ইউনূস কি আইনের ঊর্ধ্বে, প্রশ্ন হানিফের

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সকাল ১১:১৩, শনিবার, ১১ মার্চ, ২০২৩, ২৬ ফাল্গুন ১৪২৯

নোবেল বিজয়ী কি আইনের ঊর্ধ্বে? আমেরিকার এক নোবেল বিজয়ীর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের মামলা হয়েছিল। পরে জেলেও গিয়েছিলেন। আইন সব দেশে সবার জন্য সমান। রাষ্ট্রের প্রধান হোন আর নোবেল বিজয়ী হোন না কেন, অপরাধী হিসেবে আইনের মুখোমুখি হতে হবে।

নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে নিয়ে ৪০ বিশ্বনেতার খোলা চিঠির বিষয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, ড. ইউনূস অন্যায় করেছেন বলেই গ্রামীণ ব্যাংক, গ্রামীণ টেলিকম নিয়ে তদন্ত হচ্ছে। এটাকে হ্যারাজমেন্ট বলার কোনো সুযোগ নেই। এই চিঠি ষড়যন্ত্রের আলামত।

শুক্রবার (১০ মার্চ) বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাব অডিটোরিয়ামে ‘দেশ, উন্নয়ন, সরকার ও শান্তির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে’ বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের এক সুধী সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করেছেন তার কোনো নজির নেই। দেশের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে তার বিন্দুমাত্র কন্ট্রিবিউশন নেই। উল্টো মানুষকে নিঃস্ব করে দেওয়ার অজস্র রেকর্ড আছে। দেশের দুর্যোগে, ঘূর্ণিঝড়ে কবে কার পাশে তিনি এসে দাঁড়িয়েছেন, এমন একটা নজিরও কেউ দেখাতে পারবে না।

ড. ইউনূসের সঙ্গে কীসের অন্যায় হচ্ছে, প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে। কোথায় কত টাকা আত্মসাৎ করেছেন, তার তদন্ত হচ্ছে। নোবেল বিজয়ী কি আইনের ঊর্ধ্বে? আমেরিকার এক নোবেল বিজয়ীর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের মামলা হয়েছিল। পরে জেলেও গিয়েছিলেন। আইন সব দেশে সবার জন্য সমান। রাষ্ট্রের প্রধান হোন আর নোবেল বিজয়ী হোন না কেন, অপরাধী হিসেবে আইনের মুখোমুখি হতে হবে।

সরকারের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে উল্লেখ করে হানিফ বলেন, দুই দিন আগে সংবাদমাধ্যমে হঠাৎ দেখলাম— বাংলাদেশের নোবেল বিজয়ী ড. ইউনূসকে নিয়ে বিজ্ঞাপন ছাপা হয়েছে। হিলারি ক্লিনটন, বান কি মুনসহ বিশ্বের ৪০ জন নেতার নামে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তারা এ চিঠি কাকে দিয়েছে? কারা দিয়েছে? বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে নাকি চিঠি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সেই চিঠি বিজ্ঞাপন আকারে দেখতে হবে? নিউজ আকারে আসেনি কেন? প্রশ্ন রাখেন তিনি।

তিনি বলেন, ওয়াশিংটন পোস্ট বিজ্ঞাপন ছাপিয়েছে। আর আমাদের দেশে প্রথম আলো, ডেইলি স্টার নিউজ করেছে। এসব দেখে ২০০৭ সালের কথা মনে পড়লো। ২০০৬ সালে বিএনপি-জামায়াতের অত্যাচারে মানুষ যখন রুষ্ট, তখন আন্তর্জাতিক মহল বুঝতে পারলো নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপির ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা নেই।

ইসলামী ঐক্যজোট ও ইসলামী ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, জাসদের নুরুল আক্তার, গণতন্ত্রী পার্টির ডা. শাহাদাত হোসেন, তৃণমূল বিএনপির আক্কাস আলী খান প্রমুখ।

Share This Article


২ লাখ ৬৫ হাজার কোটি টাকার এডিপি অনুমোদন

শেখ হাসিনার সততা বিশ্বে আজ প্রশংসনীয়: কাদের

রপ্তানি আয়ের লক্ষ্য ১১০ বিলিয়ন ডলার

বিশ্বাসের ঘাটতি হটিয়ে সম্পর্ক দৃঢ় করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র

আমরা সামনে তাকাতে চাই, পেছনের দিকে নয়: ডোনাল্ড লু

নো হেলমেট নো ফুয়েল: ওবায়দুল কাদের

‘বাংলাদেশ ব্যাংকে নতুন করে রিজার্ভ চুরি হয়নি’

‘ইসরায়েলি লবির সঙ্গে যুক্ত হয়ে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি’

ডোনাল্ড লু’কে সরকার দাওয়াত দিয়ে আনেনি: কাদের

কোথায় যাবেন ফিলিস্তিনিরা, আশ্রয়ের খোঁজে দিশেহারা

মৃত্যুদণ্ড চূড়ান্তের আগে আসামিদের কনডেম সেলে রাখা অবৈধ: হাইকোর্ট

হজযাত্রীদের ভিসা অনুমোদনের সময় বাড়াতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর