‘বিএনপির চেঁচামেচির পরও গণতন্ত্র চর্চা সূচকে বাংলাদেশ এগিয়েছে’

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৬:৫৭, শুক্রবার, ১০ মার্চ, ২০২৩, ২৫ ফাল্গুন ১৪২৯

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির চেঁচামেচির পরও ফ্রিডম হাউস গণতন্ত্র চর্চা সূচকে বাংলাদেশ একধাপ এগিয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির অব্যাহতভাবে চেঁচামেচি- দেশে গণতন্ত্র নাই, মানুষের কথা বলার অধিকার নাই- এগুলোর মধ্যেই ওয়াশিংটনভিত্তিক সংস্থা যখন প্রতিবেদন প্রকাশ করে বাংলাদেশ গত বছরের তুলনায় এক ধাপ এগিয়েছে। তার মানে বাংলাদেশে গণতন্ত্র চর্চা অব্যাহত আছে। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অগ্রগতি হয়েছে।

১০ মার্চ দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে যুক্তরাষ্ট্রের গবেষণা সংস্থা ফ্রিডম হাউস প্রকাশিত বিশ্ব গণতন্ত্র চর্চা সূচকে বাংলাদেশের অগ্রগতি প্রসঙ্গে তিনি এ কথা বলেন।

ড. হাছান বলেন, বিএনপি নেতারা প্রতিদিন টেলিভিশনের পর্দায় সকাল-বিকাল-সন্ধ্যা কথা বলেন- আমাদের কথা বলার অধিকার নাই। সেটি যে অসার মিথ্যা, তা ফ্রিডম হাউসের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। অর্থাৎ বাংলাদেশে গণতন্ত্র চর্চা অব্যাহতভাবে সুসংগত রয়েছে। এটি আরো হতো যদি বিএনপি সঠিকভাবে গণতন্ত্র চর্চা করত।

আরো পড়ুন: ‘কোটি টাকার বিজ্ঞাপন ছাপিয়ে ব্যক্তিত্ব হরণ করলেন ড. ইউনূস’

'বিএনপির তো অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্রই নাই' মন্তব্য করে ড. হাছান বলেন, তাদের সর্বশেষ সম্মেলন কখন হয়েছে সেটা তারা নিজেরাও বলতে পারে না। এক কলমের খোঁচায় বিএনপিতে নেতা হয়, আবার এক কলমের খোঁচায় বাদ যায়। তারা যদি গণতন্ত্র চর্চা করত, দেশে সার্বিকভাবে গণতন্ত্র চর্চায় আরো সহায়ক ভূমিকা রাখত, তাহলে গণতন্ত্র সূচকে বাংলাদেশ আরো অনেক ধাপ এগিয়ে থাকত।

বিএনপি মহাসচিবের সরকারের রশি ধরে টান দেওয়ার সময় এসেছে' এমন বক্তব্য নিয়ে প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'তারা তো রশি ধরে টান দিয়েছিল ১০ ডিসেম্বর। সরকারকে রশি ধরে টান দিতে গিয়ে সেই রশি ছিঁড়ে পড়ে গিয়ে তাদেরই কোমরটা ভেঙে গেছে। এখন আবার টান দিতে গেলে তাদের কোমর আরো ভেঙে যাবে।

হাছান মাহমুদ বলেন, এটা মনে রাখতে হবে সরকারের ভিত, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভিত অনেক গভীরে প্রোথিত। এই রশি টানাটানি ১৪ বছর ধরে তারা করেছে, এতে তাদের কোনো লাভ হয়নি বরং নিজেরাই বারবার রশি ছিঁড়ে পড়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
 

Share This Article


যাবজ্জীবন সাজা হতে পারে ড. ইউনূসের: দুদক পিপি

বান্দরবানে সেনা অভিযানে কেএনএফ সদস্য নিহত

‘দুই-একবার মিয়ানমার থেকে আসা গুলি আমাদের টহলবোটেও লেগেছে’

ইসরায়েলি হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ কমান্ডার নিহত

প্রতিদিন এক হাজার ২২৪ কোটি টাকা রেমিট্যান্স আসার রেকর্ড

আনুষ্ঠানিকভাবে আম রপ্তানি শুরু

আমাদের গাফিলতি ছিল কি না তা দেখবো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জনগণকে এনআইডি সেবা দিতে যেন দেরি না হয় : সিইসি

নেদারল্যান্ডস ও ইতা‌লিতে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

১৯ উপজেলায় ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

চালানোর লোক না থাকলে যন্ত্রপাতি কিনতে পারবে না কোনো হাসপাতাল: স্বাস্থ্যমন্ত্রী