বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিনকে খালাস দিয়েছেন ভারতের আদালত

  নিউজ ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৭:৩৫, বুধবার, ১ মার্চ, ২০২৩, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৯
বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ
বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ

অনুপ্রবেশের দায়ে ভারতে আটক বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ বেকসুর খালাস পেয়েছেন। তার দেশে ফিরতে এখন আর বাধা নেই। ভারতের আসামের এক আদালতের আপিল বিভাগ ২৮ ফেব্রুয়ারি এক রায়ে এ নির্দেশনা দেন।

২০১৫ সালের ১০ মার্চ রাজধানীর উত্তরা থেকে নিখোঁজ হন সালাহউদ্দিন আহমেদ। নিখোঁজের ৬৩ দিন পর ১১ মে ভারতের মেঘালয়ের শিলংয়ে স্থানীয় পুলিশ সালাহউদ্দিনকে উদ্ধারের পর সেখানকার একটি মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করে। এর পরদিন তাকে শিলং সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বৈধ কাগজপত্র ছাড়া ভারতে প্রবেশের অভিযোগে ফরেনার্স অ্যাক্ট অনুযায়ী তাকে গ্রেপ্তার দেখায় মেঘালয় থানা পুলিশ। একই বছরের ২২ জুলাই ভারতের নিম্ন আদালতে আনুষ্ঠানিকভাবে তার বিরুদ্ধে অনুপ্রবেশের দায়ে অভিযোগ গঠন করা হয়।

১৯৯১ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার এপিএস ছিলেন। এরপর প্রশাসনের চাকরি ছেড়ে তিনি রাজনীতিতে আসেন। ২০০১ সালে তিনি কক্সবাজার থেকে এমপি নির্বাচিত হন। বিএনপি ক্ষমতায় এলে তিনি যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী হন।

ভারতে আটকের সময় সালাহউদ্দিন আহমেদ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ছিলেন। ভারতে আটক অবস্থায় বিএনপির ষষ্ঠ কাউন্সিলে তিনি দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হন।

Share This Article


সংবিধানের কোন ধারা বলে কোটা: বাতিল করলে তাদের কী হবে?

কোটাবিরোধী আন্দোলনকে সরকারবিরোধী বানানোর চেষ্টায় বিএনপি: কাদের

‘শিক্ষার্থীদের ফাঁদে ফেলে নতুন আন্দোলনের পাঁয়তারা করছে বিএনপি’

শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষায় ফেরার আহ্বান ছাত্রলীগের

কোটা ইস্যুতে আজ সংবাদ সম্মেলনে করবে ছাত্রলীগ

‘আগস্টে কোটা নিয়ে চূড়ান্ত শুনানিতে সিদ্ধান্ত দেবেন আদালত’

তাদের অর্থমন্ত্রী বারবার প্যারিস গেছেন, আ.লীগের অর্থমন্ত্রী যাননি: কাদের

নেতাকর্মীদের কেন্দ্রের সঙ্গে সমন্বয় করে কর্মসূচি পালনের আহ্বান

কোটা ও পেনশন আন্দোলন সতর্কভাবে পর্যবেক্ষণ করছি : কাদের

আবেদ আলীর ছেলে সিয়ামকে ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি

আওয়ামী লীগের যৌথ সভা আজ

জনদুর্ভোগ হয় এমন কর্মসূচি পরিহারে শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান