নোয়াখালীতে বৃদ্ধকে অমানবিক নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় এক বৃদ্ধকে অমানবিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে, চরজব্বার থানার ওসি দেবপ্রিয় দাশ জানান, চাঁদা দাবি করায় পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন চর ওয়াপদা ইউনিয়নের ধানের শীষ গ্রামের ওই বৃদ্ধ। এর জেরে গত শুক্রবার রাতে তাকে মারধর করে পায়ু পথে টর্চ লাইট ঢুকিয়ে দেয়া হয়।

পরে প্রায় দেড়ঘণ্টা অস্ত্রোপচার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতেলের চিকিৎসকরা টর্চ লাইটটি বের করেন।

এ ঘটনায় ৭২ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধের ছেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য রোববার রাতে চরজব্বার থানায় মামলা করেন।

সেখানে চর ওয়াপদা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আবুল হোসেন সানাজ (৪৫) এবং ওই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য তানভীর হোসেনসহ (৪০) আট জনের নাম উল্লেখ করা হয়। এছাড়া অজ্ঞাতনামা আরও আটজনকে আসামি করা হয়।

ওসি বলেন, মামলার প্রধান আসামি সানাজকে রাতেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাকি আসামিদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়, চর ওয়াপদা ইউনিয়নের ধানের শীষ গ্রামের ওই বৃদ্ধ কিছু দিন আগে এলাকায় একটি মসজিদ নির্মাণ করতে গেলে আসামিরা তার কাছে চাঁদা দাবি করে। টাকা না পেয়ে তারা নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়।

এ ঘটনায় ওই বৃদ্ধ আদালতে মামলা করেন। বিচারকের আদেশে চরজব্বার থানা পুলিশ মামলাটির তদন্তভার পায়। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে আসামিরা হত্যার হুমকি দিলে ওই বৃদ্ধ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে লিখিত অভিযোগ করেন।

আসামিরা তখন আরও বেশি ক্ষিপ্ত হয় জানিয়ে এজাহারে বলা হয়, গত শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে থানার হাট থেকে ওই বৃদ্ধ যখন বাড়ি ফিরছিলেন, আবুল হোসেন সানাজের নেতৃত্বে ৮/১০ জন থানার হাট- সোনাপুর সড়কের মহিলা মাদ্রাসার পাশে অস্ত্রের মুখে তার পথরোধ করে এবং মুখে গামছা পেঁচিয়ে তাকে মাটিতে ফেলে মারতে থাকে।

মামলায় বলা হয়, হামলাকারীরা এক পর্যায়ে ওই বৃদ্ধের পায়ু পথ দিয়ে টর্চ লাইট ঢুকিয়ে দেয়। এ সময় বৃদ্ধ সংজ্ঞা হারিয়ে ফেললে হামলাকারীরা তাকে ঝোপের মধ্যে ফেলে দিয়ে চলে যায়।

জ্ঞান ফেরার পর ওই বৃদ্ধ চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন তাকে খুঁজে পায় এবং তার ছেলেকে খবর দেয়। পরে ওই বৃদ্ধকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানান, তাদের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ফজলুর রহমান মানিকের নেতৃত্বে তিনজন চিকিৎসক শনিবার প্রায় দেড় ঘণ্টা অস্ত্রোপচার করে বৃদ্ধের পায়ুপথ থেকে টর্চ লাইটটি বের করেন। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত।

Share This Article


ইভিএম নিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চালাবে ইসি

সাজেদা চৌধুরীর আসনে উপনির্বাচন ৫ নভেম্বর

স্বর্ণের দাম কমলো

প্রসেনজিতের বাসায় ঢাকার তারকারা

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে পদ্মা সেতু দেখাবে পর্যটন করপোরেশন

‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের রূপকার শেখ হাসিনা’ গ্রন্থ পথ দেখাবে নতুন প্রজন্মকে

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী ৯ অক্টোবর

প্রতি কলড্রপে ৩০ সেকেন্ড ফেরত পাওয়া যাবে

বিদেশি পর্যটকদের জন্য দুয়ার খুললো বাংলাদেশ

জনগণ তো সবসময় সেই আতঙ্কে : তথ্যমন্ত্রী

ডেঙ্গুতে আরও ৩ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ভর্তি ৪৮২

পঞ্চগড়ে নৌকাডুবির ঘটনায় মৃত বেড়ে ৪১

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগের ২৭ প্রার্থী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান

বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা পাচ্ছে যে সাত প্রতিষ্ঠান

২৪ ঘণ্টায় করোনায় ছয়জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৭১৮