বাংলাদেশের প্রথম ‘জাভা চ্যাম্পিয়ন’ বজলুর রহমান

২০০৫ সাল থেকে প্রতিবছরই কিছুসংখ্যক মানুষকে জাভা চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ভূষিত করে আসছে টেক প্রতিষ্ঠান ওরাকল। যেখানে বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষকে নির্দিষ্ট কিছু কর্মদক্ষতার ভিত্তিতে পুরস্কৃত করা হয়। এগুলো হলো— জাভা কমিউনিটি বিল্ডিং এ কন্ট্রিবিউশন, জাভা সম্পর্কিত বিস্তারিত ধারণা ও দক্ষতা অর্জন, মানুষের মাঝে জাভার শিখনকে কার্যকরী উপায়ে ছড়িয়ে দেওয়া ইত্যাদি।

বাংলাদেশের জন্য এবারের আসরটি ছিল খুবই বিশেষ। কেননা, বাংলাদেশের ইতিহাসে এবারই প্রথম কেউ প্ল্যাটফর্মটিতে লাল-সবুজের প্রতিনিধিত্ব করেছেন এবং হয়েছেন চ্যাম্পিয়ন। তিনি হলেন আ.ন.ম বজলুর রহমান। এই প্রোগ্রামের মূল আকর্ষণ জাভা প্রযুক্তিতে বিশেষভাবে দক্ষ কমিউনিটি লিডাররা। যারা বিভিন্ন জাভা প্রজেক্টে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করা, জাভা ইউজার গ্রুপের সাথে জড়িত হওয়া, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে কথা বলা, জাভা বিষয়ক প্রবন্ধ বা বই লেখা ইত্যাদি নিয়ে কাজ করে থাকে।

মজার বিষয় হলো, জাভা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ধরাবাঁধা কোনো নিয়ম নেই। তবে এটি নির্ভর করে ব্যক্তির দীর্ঘমেয়াদী কাজের ওপর। এক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের কন্ট্রিবিউশন এবং ইতোমধ্যে যারা চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তাদের নজরে আসতে হয়। তারা চাইলে কাউকে নমিনেট করতে পারেন। তবে নমিনেট করলে এর পক্ষে জোরাল যুক্তি দেখাতে হয়। পরবর্তী ধাপে নমিনেশনের সেই পেপার জাভা চ্যাম্পিয়নদের একটি চৌকস দল পর্যালোচনা করে এবং কারো কোনো প্রকার অভিযোগ না থাকলেই কেবল ভোট প্রক্রিয়া শুরু হয়। এরপর ভোটে সর্বসম্মতিক্রমে উত্তীর্ণ হলে, তাকে জাভা চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়। ২০০৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৩৫৮ জনকে এ সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।

নিজের জন্য তো বটেই দেশের জন্যও অভূতপূর্ব এই কীর্তির পর ইত্তেফাককে বজলুর বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। যেকোনো কাজের স্বীকৃতিই আনন্দের এবং আরও বেশি কাজের উত্সাহ যোগায়। তবে নতুনরা যেন আরও ভালোভাবে শিখতে ও জানতে পারে এবং নিজেদেরকে বিশ্বমানের প্রোগ্রামার হিসেবে তৈরি করতে পারে— সেই কাজে আরও বেশি করে সহযোগিতা করতে চাই। ব্যক্তিগত সাফল্যের চেয়ে এগুলোর দিকেই আমি বেশি মনোযোগী।’

বজলুর আমেরিকার একটি সফটওয়্যার কোম্পানিতে সিনিয়র সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত। এর আগে একই অবস্থানে কাজ করেছেন দেশের একাধিক সফটওয়্যার কোম্পানিতে। বাংলাদেশ জাভা ইউজার গ্রুপ (https://jugbd.org/) নামে একটি কমিউনিটি নিয়ে তিনি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন। বজলুর লেখালেখি করেন প্রোগ্রামিং নিয়ে। এ পর্যন্ত তার চারটি বই প্রকাশিত হয়েছে।

Share This Article


হাসপাতালের মর্গে সেই শিক্ষিকার মরদেহ, মেডিকেল বোর্ড গঠন

সরকার কখনোই চায় না মানুষ কষ্টে থাকুক: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

টানা সাতদিন বৃষ্টির পূর্বাভাস, জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা

অন্যান্য দেশের তুলনায় মূল্যস্ফীতি বাংলাদেশে কম: তথ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশে গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রিত্বেই নির্বাচন হবে: খায়রুজ্জামান লিটন

অর্থনীতিতে বিদ্যমান চাপ সাময়িক: ঢাকা চেম্বার

সারের মজুত পর্যাপ্ত, বেশি দামে বিক্রি করলে ব্যবস্থা: কৃষিমন্ত্রী

মিসরে গির্জায় অগ্নিকাণ্ড, নিহত ৪১

সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ঝুঁকিতে প্রধানমন্ত্রী: ডিএমপি কমিশনার

অবসরের ইঙ্গিত দিলেন আনচেলত্তি

সিগারেটে স্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্মানহানিও হয়: শাজাহান খান

মানুষের কষ্ট উপলব্ধি করতে পারছি, লাঘবের চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচিতে সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ টাকা কেজিতে চাল

২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৬