অভাবের তাড়নায় ছেলেকে বাজারে তুললেন মা

অভাবের তাড়নায় নিজের ছেলেকে বাজারে তুলেছেন খাগড়াছড়ির পারুল চাকমা নামে এক মা। তার ছেলের মূল্য নির্ধারন করা হয়েছে ১২ হাজার টাকা। পারুল প্যারালাইসিসে আক্রান্ত। দীর্ঘদিন ধরে আছেন বাবার সংসারে। স্বামীর সঙ্গেও যোগাযোগ নেই তার। এমন সংকটি পরিস্থিতিতে অভাবের তাড়নায় নিজের সন্তানকে ‘বিক্রির জন্য’ বাজারে তুলেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) খাগড়াছড়ি জেলা শহরে হাট বাজারে  নিজের ৬ বছরের সন্তান রামকৃষ্ণ চাকমাকে বিক্রি করতে আনেন মা পারুল চাকমা। সন্তানের বিনিময়ে তিনি ১২ হাজার টাকা চান। বিষয়টি কয়েকজনের নজরে এলে তারা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জানান বাজারে ঘটনা সম্পর্কে। বিষয়টি জানাজানির পর জেলাজুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়।

পরে আজ শুক্রবার পরিবারটির জন্য আর্থিক সহায়তা নিয়ে ছুটে যান সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি। সন্তানসহ মাকে কমলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সুনীল চাকমার কাছে নিয়ে যান তিনি। চেয়ারম্যান ওই মাকে বুঝিয়ে পরিবারের কাছে পাঠান।

পারুল চাকমা খাগড়াছড়ি ভাইবোনছড়ার পাকোজ্জ্যাছড়ি এলাকার কালাবো চাকমার মেয়ে। স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার পর সন্তান নিয়ে তিনি বাবার বাড়িতে থাকেন। সেখানেও অভাব। এ অবস্থায় সন্তান মানুষ করা কঠিন। শিশু রাম কৃষ্ণ চাকমার মা পারুল চাকমা বলেন, ঘরে খাবার নাই। আমার ওষুধ কেনার টাকা নাই। কিভাবে চলব কিভাবে বাঁচবো। তাই ছেলেকে ভালো পরিবারে দিতে চেয়েছিলাম।

কমলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সুনীল চাকমা জানান, বিষয়টি জানার পর আমি সন্তানসহ মাকে অফিসে নিয়ে আসি। পরে পরিবারের জিম্মায় তাদের হস্তান্তর করি।


ভাইবোনছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সুজন চাকমা বলেন, এমনিতে অভাব। পারুল চাকমা শারীরিকভাবে অসুস্থ। মূলত সন্তানকে কোনো ভালো পরিবারে দত্তক দেওয়ার জন্য বাজারে নিয়ে যান তিনি। সেখানে কয়েকজনের কাছে তিনি সন্তানের বিনিময়ে ১২ হাজার টাকা চান। পরে বিষয়টি জেনে আমি দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছি। বিষয়টি সত্যিই দুঃখজনক।

শুক্রবার সকালে পারুল চাকমা ও তার সন্তান রামকৃষ্ণকে দেখতে যান সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা এমপি। এসময় তিনি পরিবারটিকে ৬ মাসের খাবার সামগ্রী, নগদ অর্থ সহায়তা দেন। একই সঙ্গে তাদের একটি সরকারি ঘর দেওয়ার ব্যবস্থা করবেন বলে জানান।

তিনি আরও বলেন, এই যুগে এমন ঘটনা সত্যিই দুঃখজনক। আমি বিষয়টি জানার পর তাদের দেখতে এলাম। অভাব থেকে এমনটা করেছেন বলে জেনেছি। শিশুটিকে কোনো সরকারি শিশু সদনে পাঠানো যায় কিনা দেখব।

Share This Article


৩ দিনের ব্যবধানে আবার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল উত্তর কোরিয়া

তালেবানকে একঘরে করে রাখলে পরিণতি হবে ভয়াবহ: বিলাওয়াল ভুট্টো

থাইল্যান্ড থেকে কানাডা গেলেন মিয়ানমারের সেই বিউটি কুইন

ট্রেন আসতেই রেললাইনে শুয়ে পড়েন আলী হোসেন!

ইরাকের কুর্দিস্তানে ইরানি হামলায় নিহত ১৩

সহপাঠীকে বিয়ে করলেন ক্রিকেটার শামিম পাটোয়ারী

মিয়ানমারে আপত্তিকর ছবি প্রকাশ, মডেলের ছয় বছরের জেল

অং সান সুচির আরও ৩ বছরের কারাদণ্ড

মানবতার ছদ্মবেশে ভোটের রাজনীতিতে জামায়াত!

অপরিবর্তিত থাকতে পারে দিন ও রাতের তাপমাত্রা

বুবলীর বেবি বাম্প প্রকাশের পরই শাকিব খান অসুস্থ

ভারতের শক্তিশালী গ্রামে স্বাগত

ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ‘সাইবার হামলায়’ কোটি মানুষের তথ্য চুরি

বিয়ে করলেন তরুণ অলরাউন্ডার শামীম পাটোয়ারী

বিশ্বের জন্য অস্ত্র উৎপাদনের ঘোষণা ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর