কাঁচা মরিচের দাম তিন দিনে অর্ধেকেরও নিচে নেমেছে

তিন দিনের ব্যবধানে রাজধানীর বাজারগুলোতে অস্বাভাবিক হারে দাম কমেছে কাঁচা মরিচের। গত শুক্রবার রাজধানীর বাজারগুলোতে প্রায় ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া কাঁচা মরিচ আজ সোমবার বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৮০ থেকে ১০০ টাকা দরে।

সোমবার রাজধানীর আগারগাঁও বিএনপি বাজার ও শ্যামলী কাজী অফিস বাজার ঘুরে বাজার দরের এমন চিত্র দেখা গেছে।

 

বাজারে সাদা গোল বেগুন কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা, মুখী কচু ৫০ থেকে ৬০, চিচিংগা ৪০ থেকে ৫০, বরবটি ৬০, পটল ৩০ থেকে ৪০, গাজর ১৩০, কালো গোল বেগুন ৬০, শসা হাইব্রিড ৪০, দেশি শসা ৬০-৮০ টাকা কেজি, ঢেঁঢস ৩০ থেকে ৪০ টাকা, করলা ৬০ থেকে ৬৫, উচ্ছে ৮০, পেপে ৪০ এবং টমেটো ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে চালকুমড়া আকার ভেদে প্রতিপিস ৩০ থেকে ৫০ টাকা, লাউ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকায়, মিষ্টিকুমড়ার কেজি ৪০ টাকা, ঝিঙা বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া লেবুর হালি ২৫ থেকে ৩০ টাকা, গোল আলুর কেজি ৩০ টাকা, প্রতিকেজি পেঁয়াজ মানভেদে ৪০ থেকে ৫০ টাকা, দেশি রসুন ৪০ থেকে ৪৫ টাকা, চায়না রসুন ১৫০ টাকা এবং আদার কেজি ১০০ থেকে ১৫০ টাকা।

বিক্রেতা মো. আবির হোসেন বলেন, গত সপ্তাহ থেকে কোনো পণ্যের দামই বাড়েনি। বরং অনেক পণ্যের দাম কমেছে। বাজারে সব ধরনের পণ্যের প্রচুর যোগান রয়েছে। কোনো পণ্যের ঘাটতি নাই। তাই দামও কম।

এদিকে চালের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, চিনিগুড়া চাল মানভেদে ১০০ থেকে ১১০ টাকা কেজি, কাটারি আতপ ৮০ টাকা, বিআর আঠাশ ৫৫ টাকা, বাসমতি চাল ৮০ টাকা, মিনিকেট ৬৫ টাকা, হাচকি (২৯ চাল) কেজি ৫৫ টাকা, পোলাও চাল প্যকেটে ১২৫ থেকে ১৩০ টাকা কেজি, খোলা পোলাও চাল ১১০ টাকা কেজি দরে বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ডালের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দেশি মসুরের ডাল চিকন ১২০ থেকে ১৩০ টাকা প্রতিকেজি, ইন্ডিয়ান মসুরের ডাল মোটা প্রতিকেজি ১১০ টাকা, খেসারি ৮০ এবং মুগ ডাল ১২০ টাকা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া বাজারে ভোজ্যতেল সয়াবিন প্রতি পাঁচ লিটারের বোতল বিক্রি হচ্ছে ৯০০ টাকা, এক লিটারের বোতলজাত সয়াবিন বিক্রি হচ্ছে ১৯৫ টাকা এবং আধা লিটারের বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৯৫ টাকা করে।

মাছের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে এক কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে ১২০০ টাকা। দেড় কেজি ওজনের ইলিশ মাছ বিক্রি হচ্ছে, ১৬০০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া রুই মাছের কেজি ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, কাতল মাছ ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা, শিং মাছ ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৫০ টাকা, শোল ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, পাঙ্গাশ ১৫০ টাকা কেজি, কৈ মাছ ২০০ থেকে ৩০০ টাকা, পাবদা ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা কেজি।

মুরগির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকা কেজি দরে, সোনালি মুরগি ২৫০ টাকা এবং লেয়ার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৫০ টাকা কেজি দরে।

Share This Article


করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৪

সাকিবকে পাপনের হুঁশিয়ারি

আগস্ট মাস আসলেই বিএনপি উন্মাদ হয়ে যায় : বাহাউদ্দিন নাছিম

জ্বালানি তেলের লাভের টাকায় এফডিআর কেন!

৫ লাখ কর্মী নেবে মালয়েশিয়া, বেতন ৬০ হাজারেরও বেশি!

৭ বছর ধ‌রে পলাতক জেএমবির ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি গ্রেপ্তার

দেশে বুস্টার ডোজ নিয়েছেন ৪ কোটির বেশি মানুষ

কেন্দ্রীয় ব্যাংক এর নির্দেশনা:সহজেই রেমিটেন্স পাঠাতে পারবেন প্রবাসীরা

গরু পাচার মামলায় অনুব্রত মণ্ডল গ্রেপ্তার

বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

ছেলের ছবি প্রকাশ করলেন পরীমণি, জানালেন নাম

জ্বালানি তেল নিয়ে প্রথম আলোর বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা!

বেশি দামে আটা বিক্রি, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

কাশ্মিরে সামরিক ঘাঁটিতে হামলা, ৩ ভারতীয় সেনা নিহত

হেঁটে ময়মনসিংহ থেকে টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন মোস্তফা