বিএসইজেডএল এর জাইকার সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর

বাংলাদেশ স্পেশাল ইকোনোমিক জোন লিমিটেড (বিএসইজেডএল) এর সাথে একটি বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা)। সোমবার (১ আগস্ট) এই চুক্তি স্বাক্ষর হয়।

বিএসইজেডএল হলো একটি উন্নয়ন কোম্পানির প্রধান শেয়ারহোল্ডার হলো সুমিতোমো কর্পোরেশন এবং বাংলাদেশ ইকোনোমিক জোনস অথোরিটি (BEZA)। নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে স্থাপিত "বাংলাদেশ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলের (BSEZ)" উন্নয়ন, বিক্রয় কার্যক্রম এবং পরিচালনার উদ্দেশ্যে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জাপানিসহ অনেক বিদেশি কোম্পানি বাংলাদেশে তাদের প্রোডাকশান বেইস বা নিজস্ব কারখানা সম্প্রসারণ করছে। এ কারণে, বেজা শিল্প পার্কগুলিকে অর্থনৈতিক অঞ্চলে রূপান্তরিত করে এবং আশেপাশের বৃহত্তর অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে বিদেশি কোম্পানিগুলোকে বিনিয়োগে উত্সাহিত করতে কাজ করছে। পদক্ষেপগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি ওয়ান-স্টপ সেবার ব্যবস্থা, যার উদ্দেশ্য নতুন বিনিয়োগ এবং বিনিয়োগ সম্প্রসারণের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন এবং পারমিটের পদ্ধতিগুলোকে সহজ করা এবং অর্থনৈতিক অঞ্চলে গড়ে উঠা কোম্পানিগুলিকে ট্যাক্সেশন এবং অন্যান্য ক্ষেত্রগুলিতে অগ্রাধিকারমূলক সুবিধা প্রদান করা।

বাংলাদেশ স্পেশাল ইকোনোমিক জোন (BSEZ) হলো বাংলাদেশ ইকোনোমি জোনস অথরিটি (BEZA) এর মাধ্যমে গড়ে উঠা অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলির মধ্যে একটি। ঢাকা মহানগর থেকে প্রায় ২০ কি.মি. দূরত্বে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে গড়ে উঠা এই অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রায় ১৯০ হেক্টর এলাকা জুড়ে অবস্থিত। ২০১৯ সালে সুমিতোমো করপোরেশনের সঙ্গে বেজার জয়েন্ট ভেঞ্চার চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে জাপানিজ অর্থনৈতিক অঞ্চল উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশ স্পেশাল ইকোনমিক জোন লিমিটেড (BSEZL)গঠিত হয় যা এই অঞ্চলের ভূমি উন্নয়ন কাজ করছে, ও চলতি বছরের মার্চ মাস থেকে জমি বিক্রির কাজও শুরু করেছে। আশা করা হচ্ছে যে এ সমস্ত পদক্ষেপের মাধ্যমে অনেক জাপানি কোম্পানি বিশেষ করে ম্যানুফেকচারিং কোম্পানি সমূহ বিএসইজেড এর মাধ্যমে তাদের ব্যবসার প্রসারে উৎসাহিত হয়ে উঠবে। জাইকার সহায়তায় বিএসইজেডএল’র এর মাধ্যমে বিএসইজেড’র উন্নয়ন বাংলাদেশের শিল্প আধুনিকায়ন এবং বৈচিত্র্যকে আরো ত্বরান্বিত করবে। এটি BSEZ-এ প্রতিষ্ঠিত জাপানি এবং অন্যান্য বিদেশি কোম্পানিগুলোকেও বিনিয়োগে উৎসাহিত করবে, এবং টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ৮ ( সকলের জন্য পূর্ণাঙ্গ ও উৎপাদনশীল কর্মসংস্থান এবং শোভন কর্মসুযোগ সৃষ্টি), ৯ (স্থিতিশীল শিল্পায়ন এবং উদ্ভাবনকে উৎসাহিত করা), এবং ১৭ (বৈশ্বিক অংশীদারিত্বের স্থিতিশীলতা আনা) বাস্তবায়ন এ অবদান রাখবে।

২০১৪ সালে শীর্ষ সম্মেলনে বিএসইজেড’র উন্নয়ন নিয়ে তৎকালীন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মধ্যে আলোচনা হয়েছিল এবং এর সফল বাস্তবায়ন উভয় দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জাইকা জাপানি ওডিএ (ODA) ঋণের (২০১৫ সাল থেকে) মাধ্যমে অবকাঠামোগত (রাস্তা, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ইত্যাদি) উন্নয়নসহ বিভিন্ন উপায়ে BSEZ-এর উন্নয়নে কাজ করছে; এবং কারিগরি সহযোগিতার মাধ্যমে (২০১৭ সাল থেকে) একটি ওয়ান-স্টপ সার্ভিস সিস্টেম চালু করতে সহায়তা করছে।

Share This Article


তেলের দাম বাড়ায় সুযোগ নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা : বাণিজ্যমন্ত্রী

গুজরাটে গর্ভবতী মুসলিম নারীকে গণধর্ষণে দণ্ডিত ১১ আসামীকে ক্ষমা

রিফাত হত্যা: আপিলের রায়ে যাবজ্জীবন দণ্ড পাওয়া সব আসামি খালাস

ভক্তকে চড় মারলেন সামান্থা

স্কুলছাত্রী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা, আটক দুলাভাই

মহামারি আকার ধারণ করেছেন জিম্বাবুয়ে হাম, ১৫৭ শিশুর মৃত্যু

চট্টগ্রাম নৌবাহিনীর ঘাঁটিতে বোমা হামলা, ৫ জেএমবির মৃত্যুদণ্ড

৭৫০ বিলিয়ন ডলারের বিলে বাইডেনের স্বাক্ষর

বিয়ের গেটের ডিজাইন নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ২০

তিন মাসে ৯ হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে আলিবাবা

ক্রিমিয়ায় অস্ত্র ডিপোতে বিস্ফোরণ: ‘নাশকতা’বলছে রাশিয়া

কুয়াকাটায় অনির্দিষ্টকালের জন্য হোটেল-রেস্তোরাঁ বন্ধ ঘোষণা

গায়কের নামে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা!

বাংলাদেশ কোনো সংকটময় পরিস্থিতিতে নেই: আইএমএফ

Bangladesh is not in a crisis situation: IMF