মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তি আঘাত হানতে পারে : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, দেশে এখনো মুক্তিযুদ্ধবিরোধী শক্তি রয়েছে। তারা যেকোনো সময় আঘাত হানতে পারে। তাই সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে। দেশকে এগিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে সাহিত্য-সংস্কৃতিকর্মীসহ দেশবাসীকে সজাগ থাকতে হবে।  

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) সকালে রংপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হওয়া সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

 

অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, কোনো জাতিকে ধ্বংস করতে চাইলে অবশ্যই তার ভাষা ও সংস্কৃতির ওপর আঘাত হানতে হবে। বায়ান্নতে সেই চেষ্টাই করেছিল পাকিস্তান। এক সময় পাকিস্তান রবীন্দ্র সংগীত বন্ধ করে দিয়েছিল। সেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছি। দেশ স্বাধীন হয়েছে।

টিপু মুনশি আরও বলেন, রংপুর ইতিহাস, ঐতিহ্য সমৃদ্ধ প্রাচীনতম জেলা। এ অঞ্চলের ভাওয়াইয়া ও সাহিত্য অনেক সমৃদ্ধ। সরকার দেশের সাহিত্য-সংস্কৃতির বিকাশ, সংরক্ষণ ও ঐতিহ্য ধরে রাখতে কাজ করে যাচ্ছে। দুই দিনের এই সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্মেলন অত্যন্ত সময়োপযোগী আয়োজন। জাতীয় পর্যায়ে রংপুরের কবি-সাহিত্যিকরা তাদের সাহিত্যকর্ম জনসম্মুখে তুলে ধরার সুযোগ পাবেন, যা আগামী প্রজন্মকে সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চায় আকৃষ্ট করবে, জাতিকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করবে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে ফিতা কেটে ও বেলুন উড়িয়ে ২ দিনের এ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মনিরুল আলম। পরে একাডেমির মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অতিথিরা।

রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (সিটিএসবি) আবু বকর সিদ্দীক, জেলার পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক জিলুফা সুলতানা।  

আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জীবনের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত ‘হাসিনা : এ ডটারস টেল’ পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয়। সম্মেলনের প্রথম দিন বিকেলে কবিতা আবৃত্তি, স্বরচিত কবিতা পাঠ, রংপুরের বিভিন্ন উপজেলার শিল্পীরা  সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেন।

সমাপনী দিন বুধবার সকালে রয়েছে রংপুর জেলার সাহিত্য, সংস্কৃতি ও কৃষ্টি অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ এবং সাহিত্যের সঙ্গে আমাদের সমাজ অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ নিয়ে সাহিত্য বিষয়ক সেমিনার। ওই দিন বিকেলে সাংস্কৃতিক পরিবেশনার পাশাপাশি সন্ধ্যায় রয়েছে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। সম্মেলনে রংপুর জেলার আট উপজেলার সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পী, কলাকুশলীরা অংশ নিয়েছেন। 

Share This Article


হাসপাতালের মর্গে সেই শিক্ষিকার মরদেহ, মেডিকেল বোর্ড গঠন

সরকার কখনোই চায় না মানুষ কষ্টে থাকুক: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

টানা সাতদিন বৃষ্টির পূর্বাভাস, জলোচ্ছ্বাসের শঙ্কা

অন্যান্য দেশের তুলনায় মূল্যস্ফীতি বাংলাদেশে কম: তথ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশে গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রিত্বেই নির্বাচন হবে: খায়রুজ্জামান লিটন

অর্থনীতিতে বিদ্যমান চাপ সাময়িক: ঢাকা চেম্বার

সারের মজুত পর্যাপ্ত, বেশি দামে বিক্রি করলে ব্যবস্থা: কৃষিমন্ত্রী

মিসরে গির্জায় অগ্নিকাণ্ড, নিহত ৪১

সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ঝুঁকিতে প্রধানমন্ত্রী: ডিএমপি কমিশনার

অবসরের ইঙ্গিত দিলেন আনচেলত্তি

সিগারেটে স্বাস্থ্যের সঙ্গে সম্মানহানিও হয়: শাজাহান খান

মানুষের কষ্ট উপলব্ধি করতে পারছি, লাঘবের চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী

খাদ্যবান্ধব কর্মসূচিতে সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ টাকা কেজিতে চাল

২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৬