পদ্মা সেতু: ভিনদেশি কূটনীতিকদের মন্তব্যের কারণ কি

  বিডি পিপলস ভয়েস ডেস্ক
  প্রকাশিতঃ দুপুর ০১:০৭, মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২, ৭ আষাঢ় ১৪২৯

পদ্মাসেতু ঘিরে জাতির যেমন আনন্দ উচ্ছ্বাস তেমনই আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছেবিশ্ব সভায়ও। ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যের কূটনীতিকদেরও নজর এখন পদ্মাসেতু উদ্বোধন ঘিরে।

 

পদ্মাসেতু বিশ্ববাজারে বড় বিনিয়োগের জন্য আস্থা তৈরি করেছে বলে মন্তব্য করেছে ইউরোপের দেশ ইতালি। ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত এনরিকো নুনজিয়াতা ২১ জুন সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ মন্তব্য করেন।  

এদিকে পদ্মাসেতু বাংলাদেশের অর্থনীতিকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব। ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ইসা বিন ইউসেফ আল দাহিলান ২১ জুন এক সংবাদ সম্মেলনে এই মন্তব্য করেন।

এছাড়া পদ্মা সেতুকে সত্যিকারের গেম চেঞ্জার উল্লেখ করেছে পরাশক্তিধর দেশ রাশিয়াও। ঢাকার রাশিয়া দূতাবাস থেকে ২০ জুন পাঠানো এক বার্তায় এ মন্তব্য করেছে রুশ দূতাবাস।

পদ্মা সেতু নির্মাণকে বাংলাদেশের আর্থিক সক্ষমতার প্রতীক হিসেবে উল্লেখ করেছে পরাশক্তিধর আরেক দেশ চীন। ঢাকায় নিযুক্ত চীনা রাষ্ট্রদূত লি জিমিং ১৯ জুন সংবাদ সম্মেলনে পদ্মাসেতু নিয়ে এই মন্তব্য করেন।  

পদ্মা সেতু বাংলাদেশিদের অনেক বড় অর্জন। এই সেতুর জন্য বাংলাদেশিদের গর্ব করা উচিত। বাংলাদেশে অস্ট্রেলীয় হাইকমিশনার জেরেমি ব্রুয়ার ২২ জুন এক বিবৃতিতে এ কথা জানান।

হাইকমিশনার জেরেমি ব্রুয়ার বলেন, পদ্মা সেতু চালু হলে মানুষের যাতায়াতের সময় কমবে।

এখন জাতীয় অর্থনীতিতে এর উল্লেখযোগ্য মাত্রা যোগ হওয়া উচিত। এই সেতুর মাধ্যমে বাংলাদেশিরা বঙ্গোপসাগর অঞ্চলে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও যুক্ত হওয়ার সুযোগ পাবে।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে হাইকমিশনার বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ এই প্রকল্পের সফল বাস্তবায়নের জন্য সরকারকে অভিনন্দন জানান।

পৃথিবীর নানান দেশে প্রতি নিয়তই বড় বড় অবকাঠামো নির্মাণ করা হচ্ছে।হয়েছে বাংলাদেশেও কিন্তু সেগুলো নিয়ে ভিনদেশের কূটনীতিকদের কোন মন্তব্য করতে দেখা যায় না। কিন্তু পদ্মাসেতৃ নিয়ে ভিনদেশি কূটনীতিকরা কেন মন্তব্য করছেন এমন প্রশ্নের উদ্রেক হতেই পারে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সেতু নির্মাণের আগেই কল্পিত দুর্নীতি, বিশ্বব্যাংকের সরে যাওয়া, ড. ইউনূসসহ কিছু মহলের  ষড়যন্ত্র, শেখ হাসিনার দৃঢ়তা ও নিজস্ব অর্থায়ন এই পাঁচটি বিষয়ের কারণে পদ্মাসেতু বিশ্বব্যাপি আলোচনায় ছিল।

নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতুর মতো মেগা প্রকল্প কোন দরিদ্র বা উন্নয়নশীল দেশের সরকার প্রধান বাস্তবায়ন করার সাহস দেখাতে পারেননি এযাবৎ, যা করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তাই বিশ্বের অন্যান্য দেশে বড় বড় অবকাঠামো নির্মাণ হলেও ভিনদেশি কূটনীতিকরা মন্তব্য করেন না। শেখ হাসিনার দৃঢ়তার কারণেই  বিরল চরিত্রের খরস্রোতা এই পদ্মায় সেতু নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে বলে বিশ্বব্যাপি প্রশংসিত হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মাসেতু।

Share This Article

বিএনপি রাজনীতির মাঠে খেলার যোগ্যতা হারিয়েছে: এমপি গোপাল

বিএনপি আমলের চেয়ে ছয় গুণ বেশি রিজার্ভ রয়েছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

স্বল্পমূল্যে বিক্রির জন্য ২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কেনা হচ্ছে

সরকার কাউকে বিশৃঙ্খলা করার অনুমতি দিতে পারে না: তথ্যমন্ত্রী

ইনশাআল্লাহ দেশবাসী প্রধানমন্ত্রীকে পঞ্চমবারের মতো নির্বাচিত করবে : পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

২০৪১ সালের মধ্যে দেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে : তাজুল ইসলাম

সমাজ থেকে বৈষম্য দূর করতে সরকার বদ্ধপরিকর : স্পিকার

পরিবেশ রক্ষায় কার্যকর পয়ঃবর্জ্য ব্যবস্থাপনা করতে হবে: আতিক

সমাবেশে বাঁশ নিয়ে আসতে বিএনপির বিজ্ঞাপন!

বাংলাদেশ ভারতের কাছে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় : ভার্মা


বিএনপির ঢাকা সমাবেশে কোনও প্রতিবন্ধকতা থাকবে না: ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশ ব্যাংকের ২ বিলিয়ন ডলার গায়েবের গায়েবী তথ্য

পিনাকী : ভয়ংকর এক তথ্য সন্ত্রাসী

পিনাকী ভট্টাচার্য: নীতিকথা আওড়ানো এক অসাধু-দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তি

মাইনাস জিয়া পরিবার : নেপথ্যে কারা?

মাইনাস জিয়া পরিবার, প্রধানমন্ত্রী হতে চান মির্জা ফখরুল!

বিএনপি'তে বিদ্রোহ: ফখরুল হঠাতে তারেককে চিঠি!

তারেক-ফখরুল দ্বন্দ্বের নেপথ্যে!

চামড়া শিল্পে ৫০ লাখ শ্রমিকের কর্মসংস্থানের হাতছানি!

১০ ডিসেম্বর ‍বিএনপির গণসমাবেশ: যা বললেন আ.লীগ নেতারা

১০ ডিসেম্বর : অস্ত্র ও বোমাবাজীতে দক্ষ কর্মীরা আসছেন ঢাকায়,দায়িত্বে ৩ জন

রংপুরের মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন লুৎফা ডালিয়া